For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

জোড়া চোরকে জুতার মালা পরিয়ে মিছিল করে পুলিশের হাতে তুলে দিলেন স্থানীয়রা

01:20 PM Jun 24, 2024 IST | Subrata Roy
জোড়া চোরকে জুতার মালা পরিয়ে মিছিল করে পুলিশের হাতে তুলে দিলেন স্থানীয়রা
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, জলপাইগুড়ি ও চন্দ্রকোনা:কথায় আছে দশ দিন চোরের একদিন সাজা। ঠিক এমনটাই যেন জলপাইগুড়ির ডুয়ার্সে(Duyars) ঘটে গেল। টুনবাড়ি চাবাগান এলাকায় দুই চোরকে হাতেনাতে ধরে জুতার মালা পরিয়ে রাস্তায় মিছিল করে পুলিশের হাতে তুলে দিলেন স্থানীয়রা।যোগেশ মানকিমুন্ডা (২৬) এবং আকাশ মুন্ডা (২৩) নামের ওই দুই চোরের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে এলাকার বিভিন্ন বাড়িতে চুরির অভিযোগ ছিল। সোমবার সকালে, স্থানীয়রা তাদেরকে একটি বাড়ি থেকে চুরি করার সময় হাতেনাতে ধরে ফেলে।এরপর, ক্ষুব্ধ জনতা তাদেরকে জুতার মালা পড়িয়ে মিছিল করে জাতীয় সড়ক ধরে মাল থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

Advertisement

পুলিশ দুজন অভিযুক্তকে আটক করেছে এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা নথিভুক্ত করেছে। অন্যদিকে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনাতে মোটর সাইকেল চোরকে হাতেনাতে ধরে গণধোলাই দিয়ে, পেছন দিয়ে হাত বাঁধা অবস্থায় রাস্তায় হাঁটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিল এলাকাবাসী। ঘটনাটি ঘটে সোমবার দুপুরে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা পৌরসভা(Chondrakona Municipality) ৭ নম্বর ওয়ার্ডে। রাজকুমার খামরুই নামে এক ব্যক্তির মোটর বাইকটি কয়েকদিন আগে চুরি হয়ে যায়। এই নিয়ে চন্দ্রকোনা থানায় অভিযোগ দায়ের করে রাজকুমার বাবু। অবশেষে, সোমবার সকাল নাগাদ এলাকার মানুষজন ওই মোটর সাইকেল চোরকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। ধৃত যুবকের নাম দুলাল জমাদার, বাড়ি গড়বেতার রসকুণ্ডু এলাকায়।

Advertisement

এদিকে,নিজেরই ঘরের মধ্যে বছর ১৩ -র কিশোর আয়ুস সাউ এর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয় শনিবার। এই ঘটনায় মৃত কিশোরের আত্মীয় পরিজনদের তরফ থেকে তার সৎ মায়ের বিরুদ্ধে খুন করার অভিযোগ করা হলে ঘটনার তদন্তে নেমে নোয়াপাড়া থানার(Noapara P.S.) পুলিশ অভিযুক্ত বাবা জিতেন্দ্র সাউ এবং সৎ মা রিঙ্কু সাউকে গ্রেফতার করেছে। অভিযোগ জিতেন্দ্র সবার প্রথম পক্ষের স্ত্রী মৃত্যুর পর দ্বিতীয় রিঙ্কু সাউকে দ্বিতীয় বিয়ে করে। তারপর থেকেই এই রিংকু সাউ প্রথম পক্ষের সন্তান এর উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতো বলে অভিযোগ। সে কারণেই তার বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ তোলা হয়েছে।

Advertisement
Tags :
Advertisement