For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

ফের বঙ্গ বিজেপিকে নিশানা অনুপমের, ‘চোর’ সম্বোধনে পোস্ট

সোশ্যাল মিডিয়ায়া নিজের লেখায় সরাসরি কারও নাম উল্লেখ করেননি অনুপম। কাকে ‘চোর’ বললেন তিনি, সেটা নিয়েই চলছে চর্চা।
05:22 PM Dec 17, 2023 IST | Koushik Dey Sarkar
ফের বঙ্গ বিজেপিকে নিশানা অনুপমের  ‘চোর’ সম্বোধনে পোস্ট
Courtesy - Facebook and Google
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: দলে থেকেই বার বার বিদ্রোহের সুর শোনা গিয়েছে তাঁর গলায়। আবারও তার পুনরাবৃত্তি ঘটালেন বিজেপি-র সর্বভারতীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা(Anupam Hazra)। নিজেদের দলে প্রতিষ্ঠিত চোরেদের বসিয়ে রাখলে, বিজেপি আদৌ তৃণমূলকে(TMC) চোর বলার জায়গা থাকবে কিনা, তা নিয়ে রবিবার প্রশ্ন তুললেন অনুপম। সরাসরি যদিও কারও নাম মুখে আনেননি অনুপম, তবে তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে বঙ্গ বিজেপির(Bengal BJP) অন্দরে। কার দিকে ইঙ্গিত করছেন তিনি, উঠছে তা নিয়েও প্রশ্ন। এদিন অর্থাৎ রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায়(Facebook Post) একটি লেখা পোস্ট করেন অনুপম। তাতে নিজের দলেরই সমালোচনা করেছেন তিনি। অনুপমের বক্তব্য, ‘নিজের দলের মধ্যে বছরের পর বছর প্রতিষ্ঠত চোর এবং দুর্নীতিগ্রস্ত মানুষদের গুরুত্বপূর্ণ পদে বসিয়ে রাখলে, আর কয়েক দিন পর তৃণমূলকে চোর বলার জায়গায় থাকব কি আমরা?’

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়ায়া নিজের লেখায় সরাসরি কারও নাম উল্লেখ করেননি অনুপম। তাই তাঁর এই পোস্ট ঘিরে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। কাকে ‘চোর’ বললেন তিনি, সেটা নিয়েই চলছে চর্চা। এর আগেও একাধিক বার সোশ্যাল মিডিয়ায় দলের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন অনুপম। বার বার কেন সোশ্যাল মিডিয়াকেই কথা বলার জন্য বেছে নিতে হচ্ছে তাঁকে, তার জবাবও এদিন নিজেই নিজের পোস্টে দিয়েছেন অনুপম। তাঁর বক্তব্য, ‘এখন কেউ কেউ আদিখ্যেতা করে বলনে, সোশ্যাল মিডিয়ায় কেন লিখছেন? কারণ পার্টির মধ্যে তো বলার সুযোগ নেই, কারণ বিজেপি-র কোনও মিটিংয়ে ডাকা হয় না, বার বার বলা সত্ত্বেও শোনা হয় না।’ একদিন আগেও ফেসবুকে এমনই একটি লেখা পোস্ট করেছিলেন অনুপম। তাঁর বক্তব্য ছিল, ‘কোণঠাসাদের উজ্জীবিত করা দলের পক্ষে ক্ষতিকারক? তাহলে কি পার্টিকে বিক্রি করে, নিজের পকেট গরম করা বা পার্টিতে থেকে চুরি করাটা শৃঙ্খলা রক্ষার মধ্যে পড়ে? আর এটা নিয়ে আওয়াড তুললেই শৃঙ্খলাভঙ্গ হয়?’

Advertisement

বার বার দলের বিরুদ্ধে একাধিক বিষয়ে সরব হয়েছেন অনুপম। সেই নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা হচ্ছিল বলে শোনা যায়। সম্প্রতি তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপও করা হয়। ফলাও করে বিষয়টি বিয়ে প্রচার করা হয়নি যদিও, তবে সম্প্রতি অনুপমকে দেওয়া ওয়াই ক্যাটেগরির নিরাপত্তা তুলে নিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। সেই আবহেই ফের ফেসবুকে সরব হলেন অনুপম। শুধু তাই নয়, অনুপম যে বীরভূম জেলার বোলপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ ছিলেন সেই বীরভূমেরই জেলা সভাধিপতি কাজল শেখ(Kajal Sheikh) তো রীতিমত তাঁকে তৃণমূলে আসার আমন্ত্রণ জানিয়ে দিয়েছেন প্রকাশ্যেই। এটাও বলেছেন, ‘অনুপম ভাল ছেলে। তাই বিজেপিতে থাকতে পারছে না। ওর শুভবুদ্ধির উদয় হোক। ও তৃণমূলে এলে আমি স্বাগত জানাবো।’ এতকিছুর পরে স্বাভাবিক ভাবেই তো জল্পনা আরও বাড়বে।

Advertisement
Tags :
Advertisement