For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

ব্যান্ডেলের নলডাঙায় অবাধে ডাকাতি,লুটপাট চালাল দুষ্কৃতীরা,এলাকায় চাঞ্চল্য

12:54 PM Jun 14, 2024 IST | Subrata Roy
ব্যান্ডেলের নলডাঙায় অবাধে ডাকাতি লুটপাট চালাল দুষ্কৃতীরা এলাকায় চাঞ্চল্য
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি,ব্যান্ডেল:ভিখারি সেজে জল খেতে চেয়ে ঘরে ঢুকে ডাকাতি করার ঘটনা জানা আছে। কিন্তু গল্প করতে করতে ডাকাতির কথা শুনেছেন কি? হুগলির ব্যান্ডেলে এক বৃদ্ধার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। চার ডাকাত মধ্যরাতে ঘরে ঢুকে বৃদ্ধার সঙ্গে গল্পগুজব করতে করতে সর্বস্ব লুট করে চম্পট দেয়।হুগলি জেলার ব্যান্ডেলের নলডাঙার বাসিন্দা রেনু পাল(৬৮)।তার দুই মেয়ে।বড় মেয়ে অদিতি বন্দ্যোপাধ্যায় থাকেন ব্যান্ডেল(Bandel) ওলাইচন্ডীতলায়।ছোটো মেয়ে সোনালী সিন্ধে থাকেন মুম্বাইতে। দু মাস ছোটো মেয়ের বাড়িতে ছিলেন বৃদ্ধা।সেসময় বাড়ি বন্ধই ছিল।

Advertisement

গত সোমবার নিজের বাড়িতে ফেরেন। শুক্রবার ভোর রাতে ঘুম থেকে উঠে বাথরুম যান।বেরিয়ে দেখেন ঘরে বসে আছে চার যুবক।তাদের মাথায় স্পট লাইট লাগানো।বৃদ্ধাকে দুষ্কৃতিরা বলে চিৎকার করলে মেরে দেবে।হাত পা বেঁধে রেখে শরীর থেকে সোনার গহনা খুলে নেয়।আলমারির চাবি নিয়ে আলামারি খোলে।পেনশানের ৩৫ হাজার টাকা তুলে রেখেছিলেন তা নিয়ে নেয়।ব্যাঙ্কের বই(Bank Pass Book ) চেক বই জামা কাপড় ছড়িয়ে ফেলে।একটা শাড়িও নিয়ে যায়। প্রায় পঁয়তাল্লিশ মিনিট ধরে এই কান্ড চলে।

Advertisement

বৃদ্ধা বলেন,দুষ্কৃতিদের বয়স ২২-২৪ হবে।নেশা করেছিল প্রত্যেকেই।একজন তো ঘুমিয়েও পরেছিল।ডাকাতি করার ফাঁকে বৃদ্ধার স্বামী কি করত,কবে মারা গেছে,মেয়েরা কোথায় থাকে এসবও জেনে নেয় দুষ্কৃতিরা।
বৃদ্ধার পাশেই থাকেন তার আত্মীয়রা।বৃদ্ধার জা মিতা পাল বলেন,আমরা পাশে থাকলেও কিছু টের পাইনি।ঘন বসতি এলাকায় এই ঘটনায় আতঙ্কিত এলাকাবাসী।স্থানীয় বাসিন্দা তরুণ চট্টোপাধ্যায় পুলিশে খবর দেন।ব্যান্ডেল পুলিশ ফাঁড়ি(Bandel Police Fari) থেকে পুলিশ আসে ঘটনার তদন্তে।

কোদালিয়া-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য শুভঙ্কর রাহা বলেন,বড় রাস্তাগুলোতে পুলিশ টহল দেয় কিন্তু ভিতরে রাস্তাগুলোতে পুলিশ যায় না।এর আগে পুরনো কোদালিয়া এ ধরনের একটি ঘটনা হয়েছিল। তবে নলডাঙ্গায় এই প্রথম।দুষ্কৃতীদের ধরুক পুলিশ টহল বাড়ুক এটাই চাইবো। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। দুষ্কুতিদের ধরতে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

Advertisement
Tags :
Advertisement