For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অপব্যবহার রুখতে আইন আসছে বাংলাদেশে

08:40 PM Mar 21, 2024 IST | Sundeep
কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অপব্যবহার রুখতে আইন আসছে বাংলাদেশে
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা: সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে কৃত্রিম  বুদ্ধিমত্তার (আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্ট) ব্যবহার। কিন্তু ইতিমধ্যেই নয়া প্রযুক্তির অপব্যবহারের ভুরিভুরি অভিযোগ উঠেছে। বিশিষ্টদের মুখ বিকৃতি করে ডিপফেক ভিডিও তৈরি করে তা সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এমনকি বিভিন্ন দেশের প্রধানমন্ত্রীও ডিপফেক ভিডিও’র শিকার হয়েছেন। বিভিন্ন দেশে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহার নিয়ে ভুরিভুরি অভিযোগ ওঠার পরে নড়েচড়ে বসেছে বাংলাদেশ সরকার। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ টানতে আইন তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার ওই আইন তৈরির কথা জানিয়েছে আইন ও বিচার মন্ত্রী আনিসুল হক।

Advertisement

এদিন নয়া আইন তৈরি নিয়ে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সঙ্গে বৈঠক করেন আইনমন্ত্রী। ওই বৈঠকের পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে আনিসুল হক বলেন, ‘গোটা বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশেও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহার বেড়ে চলেছে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার দ্রুত জনপ্রিয়তার পাশাপাশি এর নিয়ন্ত্রণেও বিভিন্ন দেশ উদ্যোগী হয়েছে। পশ্চিমী দেশগুলি এআই নিয়ন্ত্রণে আইন করার উদ্যোগ নিয়েছে। আমরাও ওই পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেপ্টেম্বরের মধ্যে এ বিষয়ে খসড়া আইন প্রণয়ন করা সম্ভব হবে।’ তবে খসড়া আইনে কী-কী থাকছে তা বিস্তারিত জানাতে রাজি হননি আইনমন্ত্রী।

Advertisement

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ন্ত্রণে আইন প্রণয়নের পক্ষে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি এদিন বলেন, ‘২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ, স্মার্ট গভর্ন্যান্স, স্মার্ট অর্থনীতি করতে হলে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। তবে বর্তমান বিশ্বে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার যে ভয়ানক পরিণতি আশঙ্কা করা হচ্ছে যা বিভিন্ন গবেষক এবং উদ্ভাবক বলছেন, তা মাথায় রেখেই আইন প্রণয়নের পথে হাঁটা হচ্ছে।’

Advertisement
Tags :
Advertisement