For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

জাহাজ প্রতিমন্ত্রী রইলেন শান্তনু, শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী হলেন সুকান্ত

08:07 PM Jun 10, 2024 IST | Mainak Das
জাহাজ প্রতিমন্ত্রী রইলেন শান্তনু   শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী হলেন সুকান্ত
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি : এবারে গুরুত্বপূর্ণ কোনও মন্ত্রক পেল না রাজ্যে বিজেপির কোনও সাংসদ। যে দুজনকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হয়েছে, তাঁরা দুজনেই প্রতিমন্ত্রী। একজন হলেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার, অন্যজন বনগাঁর সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। সুকান্তকে শিক্ষা ও শান্তনুকে জাহাজ দফতরের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হল।

Advertisement

এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা প্রথম বৈঠক করে। বৈঠকে পূর্ণমন্ত্রী ও প্রতিুমন্ত্রীদের মধ্যে দফতর বন্টন হয়। রবিবারই বাংলা থেকে বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার ও শান্তনু ঠাকুর প্রতিমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছিলেন। এদিন মন্ত্রিসভার বৈঠকে বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে শিক্ষা দফতরের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। অর্থাৎ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানের ডেপুটি হিসাবে কাজ করতে হবে তাঁকে। এর আগে ২০১৯ সালে বালুরঘাটের সাংসদ হিসাবে প্রথমবার নির্বাচিত হয়ে এসেছিলেন সুকান্ত মজুমদার। এরপর তাঁকে সাংগঠনিক দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। ২০২১ সালে রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনের পর সুকান্তকে বিজেপির রাজ্য সভাপতির দায়িত্বে আনা হয়েছিল। তবে সুকান্তর সভাপতিত্বে বিজেপি গত লোকসভা ভোটের তুলনায় ভালো ফল করতে পারেনি। এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হল তাঁকে। তবে পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্বে নয়, প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে।

Advertisement

অন্যদিকে এবারেও বনগাঁর সাংসদ শান্তনু ঠাকুরকে জাহাজ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হল। এর আগেও জাহাজ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছেন শান্তনু। এনিয়ে দুবার বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপি টিকিটে জিতে এসেছেন তিনি। উল্লেখ্য, গত লোকসভা ভোটে নির্বাচনের পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল নিশীথ প্রামাণিককে। কিন্তু এবারে নিশীথ কোচবিহার লোকসভা কেন্দ্র থেকে হেরে যান। নিশীথ ছাড়াও গত লোকসভা নির্বাচনের পর বাঁকুড়ার সাংসদ সুভাষ সরকারকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এবারে তিনিও বাঁকুড়া কেন্দ্র থেকে হেরে যান।

Advertisement
Tags :
Advertisement