For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

১০০ দিনের বকেয়া টাকা না দিলে রতুয়াতে বিজেপির নো- এন্ট্রি

05:49 PM Nov 07, 2023 IST | Subrata Roy
১০০ দিনের বকেয়া টাকা না দিলে রতুয়াতে বিজেপির নো  এন্ট্রি
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি,রতুয়া: ১০০ দিনের টাকা না নেওয়া পর্যন্ত সাংসদ খগেন মুর্মু ও বিজেপকে রতুয়ার গ্রামে ঢুকতে দেবো না, হুঁশিয়ারী তৃণমুলের। ১০০ দিনের টাকা না নেওয়া পর্যন্ত খগেন মুর্মুকে রতুয়ার বুকে আর ঢুকতে দেবো না আমরা।একশ দিনের টাকা না পাওয়া পর্যন্ত বিজেপির কর্মীদের কোন আন্দোলন করতে দেবো না।তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা সাধারণ মানুষকে সাথে নিয়ে কোন কাজ করতে আগামী দিনে দেবে না।এই হুঁশিয়ারি থাকবে বিজেপি(BJP) কর্মীদের প্রতি।গরিব মানুষের পেটে ভাত নেই, সেই ভাতের ব্যবস্থা প্রথমে করতে হবে। তারপর ঝান্ডা নিয়ে আন্দোলন করুন। গরিব মানুষের মাথার উপর ছাদ নাই,সেই ছাদের ব্যবস্থা আগে করুন তারপর ঝান্ডা নিয়ে আন্দোলন করবেন।

Advertisement

১০০ দিনের কাজের টাকা এবং আবাস যোজনা টাকার দাবিতে রতুয়ার সভা থেকে হুঁশিয়ারি মালতিপুরের বিধায়ক তথা জেলা তৃণমূল সভাপতি আব্দুর রহিম বক্সির(Abdur Rahim Bakshi)। মালদার রতুয়ায় ১০০ দিনের কাজের টাকা এবং আবাস যোজনার টাকার দাবিতে রতুয়ায় সভা করে তৃণমূল কংগ্রেস। আর এই সভায় বক্তব্য রাখার সময় হুঁশিয়ারি দেন জেলা তৃণমূল সভাপতি আব্দুর রহিম বক্সি। তিনি বলেন, আমি আজকে ছিলাম রতুয়ায় , দেখছি কতিপয় মানুষ বিজেপির ঝান্ডা নিয়ে ব্লক অফিসের সামনে দাঁড়িয়ে বলছে তৃণমূল চোর হ্যায়, তৃনমূল চোর হ্যায়।আমি প্রশ্ন করি, বন্ধু ৭০০০ কোটি টাকা বিজেপি আটকে রেখেছে। আর এই নিয়ে এখানকার সাংসদ খগেন মুর্মু একটাও কথা বলছেন না। মালদায় চারজন বিজেপির বিধায়ক আছেন তারা একটাও কথা বলছেন না। আর এখানে এসে উস্কে দিয়ে মানুষের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করে দিয়ে খগেন মুর্মু এখান থেকে মানুষের মধ্যে এক ধরনের দাঙ্গা লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

Advertisement

কিছু কিছু মানুষকে উসকে দিয়ে তিনি পাঠাচ্ছেন ব্লকের কাছে। তোমরা চাও যাতে তৃণমূলের সাথে তোমাদের দ্বন্দ্ববাধে।রহিম বক্সীর এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তীব্র কটাক্ষ করেছেন মালদা উত্তরের বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু। তিনি বলেন কেন্দ্র সরকার(Central Goverment) টাকা দিয়েছে কিন্তু সেই টাকা রহিম বক্সির পকেটে গেছে ,তার দলের লোকেদের পকেটে গেছে। গরিব মানুষের টাকা তৃণমূল কংগ্রেসের পকেটে গেছে। কোটি কোটি টাকার তারা হিসেব দিতে পারছেন না। তৃণমূল কংগ্রেসের একমাত্র জায়গা হচ্ছে জেলখানা। ওদের সবাইকে জেলখানায় ভরতে হবে।

Advertisement
Tags :
Advertisement