For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

৫ কোটি টাকা দিয়েও ভ্যানিটি ভ্যান পাননি, প্রতারণার শিকার কপিল শর্মা

কপিল একটি অভিনব কাস্টমাইজড গাড়ি অর্ডার দিয়েছিলেন দিলীপ ছাবারিয়ার কাছে, কিন্তু তিনি তাঁর গাড়ি তো ডেলিভারি করেননি, উল্টে কপিলের বিরুদ্ধে দোষ চাপানোর চেষ্টা করেছিলেন।
12:16 PM Feb 08, 2024 IST | Sushmitaa
৫ কোটি টাকা দিয়েও ভ্যানিটি ভ্যান পাননি  প্রতারণার শিকার কপিল শর্মা
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: দিলীপ ছাবরিয়া, বিখ্যাত গাড়ি ডিজাইনার। তিনি বিশেষত তারকাদের গাড়ি ডিজাইন করেন। সম্প্রতি প্রতারণার মামলায় অভিযুক্ত হয়েছেন দিলীপ ছাবরিয়া। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি একাধিক মানুষের গাড়ি ডিজাইনিং-এর জন্যে টাকা নিয়েও তাঁদের কাজ করে দেননি। উল্টে পুরো টাকাই আত্মসাৎ করেছেন। একাধিক অভিযোগের ভিত্তিতে ছাবরিয়া এবং অন্য ছয় অপরাধিকে সমন পাঠিয়েছে ইডি। সূত্রের খবর, স্ট্যান্ড-আপ কমেডিয়ান তথা জনপ্রিয় অভিনেতা কপিল শর্মাও তাঁর প্রতারণার ফাঁদে জড়িয়ে পড়েছেন। শুধু তিনি নন, বেশ কয়েকজন সেলিব্রিটিরাও তাঁর প্রতারণার ফাঁদে পড়েছে। অভিনেতার ম্যানেজার মহম্মদ হামিদ অভিনেতার তরফ থেকে জানিয়েছে যে, কপিল একটি অভিনব কাস্টমাইজড গাড়ি অর্ডার দিয়েছিলেন দিলীপ ছাবারিয়ার কাছে, কিন্তু তিনি তাঁর গাড়ি তো ডেলিভারি করেননি, উল্টে কপিলের বিরুদ্ধে দোষ চাপানোর চেষ্টা করেছিলেন। রীতিমতো টাকা তোলার ধান্দা এঁটেছিলেন।

Advertisement

ইডি মানি লন্ডারিং মামলায় ছাবরিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগপত্রের অংশ হিসাবে শর্মার অনুমোদিত প্রতিনিধি হামিদের বিবৃতি রেকর্ড করেছে। আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি এই মামলার শুনানি। কপিল শর্মার দায়ের করা প্রতারণার মামলা সহ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তিনটি এফআইআর-এও নথিভুক্ত হয়েছে। তার উপর ভিত্তি করেই ইডি মামলা দায়ের করেছে। ইডির সামনে তাঁর বিবৃতিতে, অভিনেতার প্রতিনিধি বলেছেন, কপিল শর্মা, কে 9 প্রোডাকশনের একমাত্র মালিক, ২০১৬ ডিসেম্বরে তিনি একটি কাস্টমাইজড ভ্যানিটি ভ্যান কেনার জন্য দিলীপ ছাবারিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন।পরবর্তীকালে, K9 প্রোডাকশন এবং দিলীপ ছাবরিয়ার মধ্যে এই ডিজাইন বাবদ ৪.৫ কোটির কাস্টমাইজড ভ্যানিটি ভ্যান সরবরাহের জন্য একটি চুক্তি হয়, সম্মত শর্তাবলী অনুসারে, শর্মার প্রোডাকশন হাউস ৫.৩১ কোটি টাকা প্রদান করেছে। কিন্তু ডিসিডিপিএল শর্মাকে প্রতিশ্রুত ভ্যানিটি ভ্যানটি সরবরাহও করেনি এবং কোনও অর্থ ফেরত দেয়নি।

Advertisement

ভ্যানিটি ভ্যানের কাজ করতে বিলম্ব সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, ছাবারিয়া হামিদকে বলেছেন, তিনি গাড়িটি পরিদর্শন করতে গাড়ি ডিজাইনারের পুনে গিয়েছিলেন, যেখান থেকে গাড়ির অভ্যন্তরীণ সমস্ত উপকরণ কেনা হয়েছে এবং একটি গুদামে রাখা হয়েছে। কিন্তু তখন অভিযুক্ত কপিলের গাড়ির জন্যে আরও কয়েক কোটি টাকা চেয়ে বসেন, বলেন আরও টাকা দরকার। এরপর গাড়িটির বিতরণের জন্য ছাবারিয়া আরও ৫৪ লাখ টাকা চান কপিলের কাছ থেকে। হঠাৎ অতিরিক্ত অর্থের দাবির জন্যে কপিল শর্মার মনে সন্দেহ জাগে। এরপর অভিনেতার কাছ থেকে অর্থ আদায়ে তাঁর উদ্দেশ্য সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে, ছাবরিয়ার সঙ্গে কপিলের শত্রুতা শুরু হয়। অভিযুক্ত ব্যক্তি শর্মাকে মেল চিঠিপত্র পাঠাতে শুরু করে, ভ্যানিটি ভ্যানের সময়মত পরিদর্শন না করার জন্য তাকে মিথ্যাভাবে দোষারোপ করে এবং গাড়িটি না ডেলিভারির কারণ হিসাবে উল্লেখ করে। এরপরই কপিল শর্মা আইনি পদক্ষেপ নেন। ইডি বলেছে যে, অভিযুক্ত ব্যক্তি এবং কোম্পানি জেনেশুনে ব্যক্তিগত লাভের জন্য অবৈধ উপায়ে লিপ্ত হয়েছে।

Advertisement
Tags :
Advertisement