For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

চাঁচলে সোনার দোকানে ডাকাতির ঘটনায় ঝাড়খণ্ড থেকে গ্রেফতার দুষ্কৃতী

04:07 PM Jan 06, 2024 IST | Subrata Roy
চাঁচলে সোনার দোকানে ডাকাতির ঘটনায় ঝাড়খণ্ড থেকে গ্রেফতার দুষ্কৃতী
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি,চাঁচল: বড়দিনের ভর সন্ধ্যায় মালদহের চাঁচলে সোনার দোকানে ডাকাতির ঘটনায় ঝাড়খণ্ড থেকে গ্রেফতার এক ডাকাত। ঝাড়খণ্ডের(Jharkhand) সাহেবগঞ্জ জেলার লোহান্ডা এলাকা থেকে দীপক কুমার দাস নামে এক দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করে মালদা(Malda) পুলিশের একটি বিশেষ দল। চাঁচলে ডাকাতির ঘটনার মাস্টারমাইন্ড লালু সাহানির নিকট আত্মীয় এই দীপক কুমার দাস। ট্রানজিট রিমান্ডে তাকে নিয়ে আসা হয় মালদায়। ডাকাতি,লুটপাট,ষড়যন্ত্র এবং আগ্নেয়াস্ত্র ধারায় মামলার রুজু করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। পুলিশের দাবি জেরাই ডাকাতির কথা স্বীকার করেছে অভিযুক্ত।এমনকি সিসিটিভি(CCTV) ক্যামেরার ছবির সাথে মিল রয়েছে দীপক কুমার দাসের।

Advertisement

উল্লেখ্য ২৫ ডিসেম্বর মালদহের চাঁচলের নেতাজী মার্কেটে (Netaji Market)এক সোনার দোকানে ভর সন্ধ্যায় পাঁচজনের এক ডাকাত দল ঢুকে সমস্ত ষনার অলঙ্কার ও চাঁদির জিনিস নিয়ে চম্পট দেয়। এরপর থেকে ফেরার ছিল এই ডাকাত দলটি। এরপর জেলা পুলিশ ডাকাতকে ধরতে তৎপরহয়ে ওঠে। এই ঘটনায় ব্যবসায়ী ও বিজেপির পক্ষ থেকে ডাকাত দলকে গ্রেফতার ও নিরাপত্তার দাবিতে চাঁচল থানায় বিক্ষোভ দেখান হয়। এরপর তদন্তে নেমে এক লিঙ্কম্যনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।এরপর দ্বায়িত্ব ভার দেওয়া হয় সিআইডিকে।

Advertisement

এদিন ডাকাতিতে জড়িত পাঁচজনের অন্যতম একজনকে গ্রেফতার করেছে মালদা জেলা পুলিশ। শুক্রবার জেলা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ঝাড়খণ্ড পুলিশের সহযোগিতায় সাহেবগঞ্জ জেলার(Sahebganj District) জিরুয়াবাড়ি থানা(Jiruabari P.S.) এলাকা থেকে ওই দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জেরায় ধৃত যুবক ডাকাতিতে জড়িত থাকার ঘটনা স্বীকার করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন দুষ্কৃতীমূলক কাজ কর্মের সঙ্গে যুক্ত থাকত ধৃত যুবক। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শনিবার ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানিয়ে চাঁচল মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়। জেলার পুলিশ সুপার প্রদীপ কুমার যাদব জানিয়েছেন, একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বাঁকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

Advertisement
Tags :
Advertisement