For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

পরস্পরের সঙ্গে সমঝোতা! অপূর্বর বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ মিথ্যা

সেখানে প্রমাণ হয় যে, চুক্তি মোতাবেক কেউই সম্পূর্ণ কার্য সম্পাদন করেনি। আর বিচারক সংস্থা অপূর্বর বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ উড়িয়ে, চুক্তিবিষয়ক জটিলতার বিশয়তা স্পষ্ট করেছেন।
01:34 PM Mar 17, 2024 IST | Sushmitaa
পরস্পরের সঙ্গে সমঝোতা  অপূর্বর বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ মিথ্যা
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা: অবশেষে দুই পক্ষের মতামতের ভিত্তিতে সমস্যার সমাধান হল। দিন কয়েক আগেই প্রকাশ্যে এসেছিল যে, লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়েছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিল একটি প্রযোজনা সংস্থা। অভিযোগ, অপূর্বর সঙ্গে তাঁদের ২৪ টি নাটক করার কথা ছিল। যার জন্যে তাঁর সঙ্গে ৫০ লাখ টাকার চুক্তি হয়েছিল। ৯ টি নাটক করার পর অভিনেতাকে ৩৩ লাখ টাকা দেওয়া হয়। কিন্তু এরপর শুটিংয়ের জন্যে একাধিকবার অভিনেতার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাঁর খোঁজ মেলেনি। তিনি চুক্তিভঙ্গ করেছেন। এমনকি একবার শুটিংয়ের সমস্ত প্রস্তুতি হয়ে গেলেও নির্ধারিত দিতে অভিনেতা সেটে আসেন নি। এরপরেই ওই প্রযোজনা সংস্থা মাঠে নামে।

Advertisement

টেলিভিশন অ্যান্ড ডিজিটাল প্রোগ্রাম প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টেলিপাব) এবং অভিনয়শিল্পী সংঘের কাছে বিষয়টি দেখার জন্যে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন আলফা আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। অবশেষে ৭ দিন পর গতকাল (১৬ ফেব্রুয়ারি) অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব আলফা আইয়ের বিবাদের সমস্ত সমস্যার সমাধান করেছেন। এদিন সমঝোতার টেবিল থেকে উঠে দুজনই মিলেমিশে ছিলেন।

Advertisement

শনিবার মধ্যরাত পর্যন্ত দুই পক্ষের সঙ্গেই মিটিং করেন সংশ্লিষ্ট সংগঠনের নেতারা। মিটিংয়ের শেষে একটি যৌথ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সাম্প্রতিক সময়ে জিয়াউল ফারুক অপূর্ব এবং প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আলফা আই স্টুডিওসের মধ্যে যে চুক্তিবিষয়ক জটিলতা তৈরি হয়েছিল, সেই বিবাদের সমাধান করেছে প্রডিউসার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টেলিপ্যাব) ও অভিনয় শিল্পী সংঘ। সেখানে প্রমাণ হয় যে, চুক্তি মোতাবেক কেউই সম্পূর্ণ কার্য সম্পাদন করেনি। আর বিচারক সংস্থা অপূর্বর বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ উড়িয়ে, চুক্তিবিষয়ক জটিলতার বিশয়তা স্পষ্ট করেছেন।

আর অভিনেতা ৯টি নাটকে অভিনয় করেছেন অপূর্ব এবং বাকি নাটকগুলো উভয়পক্ষই আর না করার বিষয়ে একমত দিয়েছে। সেক্ষেত্রে দুইপক্ষের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যদিও এই অভিযোগের পর বিব্রত ছিলেন অপূর্ব নিজেও। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য নয়। ঘটনাটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত উল্লেখ করে তিনি বলেন, অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ তাঁর জন্য মানহানিকর।

Advertisement
Tags :
Advertisement