For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

রবিবার ইস্টবেঙ্গল-মোহনাগান ডার্বি যুদ্ধ শুরু রাত সোয়া আটটায়

08:35 PM Mar 05, 2024 IST | Sundeep
রবিবার ইস্টবেঙ্গল মোহনাগান ডার্বি যুদ্ধ শুরু রাত সোয়া আটটায়
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: আগামী রবিবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগানের ডার্বিযুদ্ধ নিয়ে সব সমস্যার অবসান। ওই দিন সন্ধে সাড়ে সাতটার পরিবর্তে রাত সোয়া আটটা থেকে শুরু হবে ম্যাচ। দর্শকদের যাতায়াতের সমস্যার কথা মাথায় রেখে ম্যাচের সময় চূড়ান্ত করা হয়েছে। অর্থা‍ৎ রাত দশটার মধ্যেই ম্যাচ শেষের সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে বাড়ি ফিরতে খুব একটা সমস্যায় পড়তে হবে না দুই দলের সমর্থকদের।

Advertisement

আগামী ১০ মার্চ আইএসএল ডার্বি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই সংশয় তৈরি হয়েছিল। ওই দিন দুপুরে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের ব্রিগেডে সভা রয়েছে। ওই সভার জন্য পর্যাপ্ত পুলিশ দেওয়া সম্ভব নয় জানিয়ে আয়োজক ইস্টবেঙ্গলকে ম্যাচের দিন বদলের অনুরোধ করেছিলেন বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটের আধিকারিকেরা। গত সপ্তাহে এ নিয়ে  ক্লাব কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশ আধিকারিকদের একাধিক বৈঠকও হয়। বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটের তরফে প্রস্তাব দেওয়া হয়, ১০ মার্চের পরিবর্তে ডার্বি পিছিয়ে পরের দিন ১১ মার্চ করা হোক। কিন্তু ওই প্রস্তাবে সম্মতি জানাননি লাল-হলুদের কর্তারা। আইএসএল লিগ কমিটির সঙ্গে কথা না বলে কোনও রকম সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব নয় বলে জানান তারা।

Advertisement

পুলিশ ১০ মার্চ নিরাপত্তা দিতে পারবে না জানার পর কলকাতার পরিবর্তে জামশেদপুর কিংবা ভুবনেশ্বরে ডার্বি ম্যাচ আয়োজন করা যায় কি না, তা নিয়ে কথাবার্তা শুরু করেছিল আয়োজক ইস্টবেঙ্গল। কিন্তু দুই দলের সমর্থকদের কথা মাথায় রেখে শেষ পর্যন্ত কলকাতার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনেই ম্যাচ আয়োজনের দিকে ঝোঁকে লালহলুদ শিবির। প্রথমে ঠিক হয়েছিল, রাত নয়টায় শুরু হবে ম্যাচ। কিন্তু সম্প্রচারকারী সংস্থা আপত্তি জানানোয় মঙ্গলবার বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। বৈঠকে ঠিক হয়েছে, ইস্টবেঙ্গল সমর্থকেরা ঢুকবেন ১, ২ এবং ৩ নম্বর গেট দিয়ে। মোহনবাগান সমর্থকেরা ৩এ, ৪ এবং ৫ নম্বর গেট দিয়ে।

Advertisement
Tags :
Advertisement