For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

প্রথমবার বার্ড ফ্লু'র নয়া প্রজাতিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু

গত ২৪ এপ্রিল 'বার্ড ফ্লু'র এই নয়া প্রজাতির আক্রমণে মারা গিয়েছেন মেক্সিকোর ওই ব্যক্তি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। তাঁর রোগের উপসর্গ ছিল, জ্বর, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া ও বমি বমি ভাব।
12:55 PM Jun 06, 2024 IST | Susmita
প্রথমবার বার্ড ফ্লু র নয়া প্রজাতিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রথমবার 'বার্ড ফ্লু'র নয়া প্রজাতিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক ব্যক্তির। আর 'বার্ড ফ্লু'র নয়া প্রজাতির খোঁজ মিলল মেক্সিকোতে। জানা গিয়েছে, বার্ড ফ্লু ভাইরাসের এইচ৫এন২-তে আক্রান্ত হয়ে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। আর বিশ্বে 'বার্ড ফ্লু'র নয়া প্রজাতি এইচ৫এন২ আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা প্রথম। বিষয়টি গতকাল তথা বুধবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) জানিয়েছে। তাঁদের দেওয়া বিবৃতি অনুযায়ী, গত ২৪ এপ্রিল 'বার্ড ফ্লু'র এই নয়া প্রজাতির আক্রমণে মারা গিয়েছেন মেক্সিকোর ওই ব্যক্তি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। তাঁর রোগের উপসর্গ ছিল, জ্বর, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া ও বমি বমি ভাব। তবে 'বার্ড ফ্লু' সাধারণত মুরগীর থেকেই মানুষের শরীরে আসে।

Advertisement

কিন্তু মৃত ব্যক্তির খামার কিংবা অন্য কোনও প্রাণীর সংস্পর্শে থাকার কোনও ইতিহাস নেই। স্টেট অব মেক্সিকোর ওই বাসিন্দাকে অসুস্থ অবস্থায় মেক্সিকো সিটির হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। ওই দিনই তাঁর মৃত্যু হয়। পরে স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্টে পাওয়া যায়, তিনি ইনফ্লুয়েঞ্জা এ (এইচ৫এন২) ভাইরাসে আক্রান্ত গিয়েছিলেন। যে ঘটনাটি গোটা বিশ্বে এই প্রথম। গত ২৩ মে পরীক্ষাগারে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর WHO-কে বিষয়টি জানায় মেক্সিকোর স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। এদিকে মেক্সিকোর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যে ব্যক্তি মারা গিয়েছেন তিনি দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগ, টাইপ-২ ডায়াবেটিস এবং উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন। তার মধ্যেই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। তবে WHO-এর কথায়, ওই ব্যক্তির ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উৎস এখনও অজানা। কিন্তু মেক্সিকোতে একাধিক পোল্ট্রি খামারগুলিতে এইচ৫এন২-এর সংক্রমণ দেখা গিয়েছে। গত মার্চে মিচোয়াকান রাজ্যের পোলট্রি খামারে এইচ৫এন২ ভাইরাস শনাক্ত হয়। তবে মানুষের আক্রান্ত হওয়া ও পোলট্রি সংক্রমণের ঘটনার মধ্যে কোনও যোগসূত্র আছে কি না, তা এ মুহূর্তে জানা যায়নি।

Advertisement

কিন্তু এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে মৃত্যুর ঝুঁকি কম বলে জানিয়েছে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা(WHO)। মেক্সিকোর স্বাস্থ্য সংস্থা আরও জানিয়েছে, যে ব্যক্তি মারা গিয়েছেন তাঁর সংস্পর্শে আসা মানুষদের সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি নেই। তাঁদের নমুনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে। ওই ব্যক্তির বাড়ির আশপাশের খামারগুলিকে পর্যবেক্ষণে রেখেছে কর্তৃপক্ষ। ওই এলাকায় বন্য প্রাণীগুলি আক্রান্ত হচ্ছে কি না, তা শনাক্ত করতে একটি নজরদারির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে কয়েক সপ্তাহ ধরে বার্ড ফ্লুর এইচ৫এন১ ভাইরাসে খামারের গরুরা আক্রান্ত হয়েছে এবং এতে কয়েকটি মানুষও আক্রান্ত হয়েছে। তবে পশু থেকে মানুষে এই ভাইরাস ছড়ানোর খবর পাওয়া গেলেও মানুষের থেকে মানুষের আক্রান্ত হওয়ার খবর মেলেনি।

Advertisement
Tags :
Advertisement