For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

ইজরায়েলের গণহত্যার বিরুদ্ধে মুখ খুলে সমালোচনার কোপে গিগি হাদিদ

তাঁদের কথায়, ইজরায়েলি কর্তৃপক্ষ তাঁদের সম্মতি ছাড়াই বছরের পর বছর ধরে মৃত ফিলিস্তিনিদের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংগ্রহ করছেন।
11:38 AM Nov 28, 2023 IST | Sushmitaa
ইজরায়েলের গণহত্যার বিরুদ্ধে মুখ খুলে সমালোচনার কোপে গিগি হাদিদ
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: দীর্ঘ দেড় মাস পর গাজা-ইজরায়েল যুদ্ধে অবশেষে গত শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) থেকে চার দিনের যুদ্ধ বিরতি কার্যকর হয়েছে। মুক্তি পাচ্ছে উভয় দেশের বন্দীরা। গতকাল সোমবার (২৭ নভেম্বর) গাজায় যুদ্ধ বিরতির মেয়াদ বৃদ্ধির কথাও ঘোষণা করেছে ইজরায়েল। তারপরই গাজা উপত্যকা থেকে হামাস গোষ্ঠী আরও ১১ বন্দীকে মুক্তি দিয়েছে।

Advertisement

মুক্তি পাওয়া ব্যক্তিরা নিরাপদে ইজরায়েলে পৌঁছেছেন। যুদ্ধ বিরতির মেয়াদ আরও দুই দিন বাড়ানো হয়েছে। আজ মঙ্গল (২৮ নভেম্বর) ও কাল বুধবার (২৯ নভেম্বর) গাজা উপত্যকায় ইজরায়েল হামলা চালাবে না। এ ছাড়া এই দুই দিনে নিজেদের মধ্যে আরও বন্দী বিনিময়ে রাজি হয়েছে হামাস ও ইজরায়েল। এদিকে ইজরায়েল-হামাস সংঘর্ষ নিয়ে প্রতিনিয়ত সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন উভয় দেশের তারকারা। যার মধ্যে ইজরায়েলি অভিনেত্রী গ্যাল গ্যাডোট এবং ফিলিস্তিনি-আমেরিকান সুপার মডেল গিগি হাডিড অন্যতম। তবে নিজেদের দেশকে সমর্থন জানিয়ে অন্য দেশের বিরোধিতা করে রীতিমতো কটাক্ষের মুখে পড়ছেন তারকারা।

Advertisement

সম্প্রতি ফিলিস্তিনি-আমেরিকান সুপার মডেল গিগি হাদিদ ইজরায়েলের বিরুদ্ধে একটি বিস্ফোরক ভিডিও পোস্ট করে ফের বিতর্কে জড়ালেন। যদিও ভিডিওটি এখন মুছে ফেলেছেন ২৮ বছর বয়সী সুপার মডেল। যেখানে তিনি দাবি করেছিলেন যে, ৭ অক্টোবর হামাসের আকস্মিক আক্রমণের আগে বিরোধী  ইজরায়েল ফিলিস্তিনিদের হত্যা, নির্যাতন, ধর্ষণ, অপহরণ এবং অপমান করেছে, যার ফলে প্রায় ১২০০ জন নিহত হয়েছে। তিনি লিখেছেন, ইজরায়েল "বিশ্বের একমাত্র দেশ" যা শিশুদের যুদ্ধবন্দী হিসাবে রাখে। তাঁর পোস্টে আহমেদ আলমানসরাকেও দেখানো হয়েছে, যাঁকে ১৩ বছর বয়সে ইজরায়েলি পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। তাঁকে ১২ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হলেও পরে তা কমিয়ে ৯.৫ বছর করা হয়েছিল। 

তিনি তাঁর পোস্টে আরও দাবি করেছেন যে, আলমানসরার গুরুতর স্বাস্থ্যের অবস্থা থাকা সত্ত্বেও "ইজরায়েলের দখলদারিত্ব" তাঁকে অপহরণ করেছিল। নির্জন কারাবাসে দিনের পর দিন তাঁর উপর অত্যাচার করা হয় এবং এখনও ইজরায়েলি কারাগারে "শতশত ফিলিস্তিনি শিশু বন্দী রয়েছে, যাঁরা ইজরায়েলি কারাগারে ভুগছে।" তবে এখানেই শেষ নয়, মিসেস হাদিদ আরও একটি ভিডিও পোস্ট করে দাবি করেছেন যে, ইজরায়েল-ফিলিস্তিনিদের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংগ্রহ করে। যেটি স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা ও স্বীকার করেছেন। তাঁদের কথায়, ইজরায়েলি কর্তৃপক্ষ তাঁদের সম্মতি ছাড়াই বছরের পর বছর ধরে মৃত ফিলিস্তিনিদের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংগ্রহ করছেন।"

এই ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভের সৃষ্টি করেছিল এবং বেশ কয়েকজন ব্যবহারকারী তার মডেলিং এজেন্সি, আইএমজি, তাঁর চুক্তি বাতিল করার দাবি তুলেছেন। নিউ ইয়র্ক পোস্ট অনুসারে, গত মাসে, মিস হাদিদ তার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে একটি গ্রাফিক পুনঃপোস্ট করে লিখেছিলেন, "ফিলিস্তিনিদের প্রতি ইজরায়েলি সরকারের আচরণ সম্পর্কে ইহুদি কিছুই জানেনা৷ ইজরায়েলি সরকারের নিন্দা করা ইহুদিবিরোধী নয় এবং ফিলিস্তিনিদের সমর্থন করা হামাসকে সমর্থন করা নয়৷" তাঁর পোস্টের প্রতিক্রিয়ায়, ইজরায়েল রাষ্ট্র বলেছে, "হামাসের ইজরায়েলিদের গণহত্যা সম্পর্কে কোনও সাহসিকতা নেই। হামাসকে নিন্দা করা, (ISIS) ফিলিস্তিনি বিরোধী নয়।

Advertisement
Tags :
Advertisement