For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

লিড দিন, পদ নিন, নাহলে পদ ছেড়ে দিন, স্পষ্ট বার্তা অভিষেকের

নিজ নিজ এলাকায় লিড দিতে পারবেন তাঁরা পদে থাকবেন, নাহলে তাঁদের পদ ছাড়তে হবে - স্পষ্ট বার্তা অভিষেকের, দলেরই কার্যকর্তাদের।
05:43 PM Mar 27, 2024 IST | Koushik Dey Sarkar
লিড দিন  পদ নিন  নাহলে পদ ছেড়ে দিন  স্পষ্ট বার্তা অভিষেকের
Courtesy - Twitter
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: লোকসভা নির্বাচনে(Loksabha Election 2024) নিজের সংসদীয় কেন্দ্র ডায়মন্ডহারবারে(Daimond Harbour) জয়ের ‘টার্গেট’ বেঁধে দিয়েছেন বাংলার শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের(TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়(Abhishek Banerjee)। আর সেই ‘টার্গেট’ পূরণ না হলে যে দলের পদে থাকা কাউকে রেয়াত করা হবে না, সেটাও বুধবার স্পষ্ট করে দিলেন তিনি। এদিন অর্থাৎ বুধবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বিষ্ণুপুরের আমতলায় ডায়মন্ডহারবার বিধানসভা কেন্দ্রের দলীয় কার্যকর্তাদের নিয়ে একটি বৈঠকে বসেন অভিষেক। সেখানেই ডায়মন্ডহারবার পুরসভার সব দলীয় কাউন্সিলর এবং বিধানসভা কেন্দ্রের দলের সব কার্যকর্তাকে জানিয়ে দেন, এবার তাঁর ভোটে জেতার ব্যবধান অন্তত চার লক্ষ হতে হবে। তাই সেক্ষেত্রে যারা নিজ নিজ এলাকায় লিড দিতে পারবেন তাঁরা পদে(Party Post) থাকবেন, নাহলে তাঁদের পদ ছাড়তে হবে।

Advertisement

এদিনের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে অভিষেক দলের কার্যকর্তাদের সামনে প্রশ্ন তোলেন, এতো উন্নয়ন ও পরিষেবা দেওয়ার পরও কেন ২০১৯ সালে এই লোকসভা এবং ২০২১’র বিধানসভা নির্বাচনে ডায়মন্ডহারবার বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে থাকা বুথগুলির মধ্যে সব বুথে তৃণমূল লিড পায়নি। এবার সেই বুথগুলিতে আরও জোর দিতে হবে। কেন সেখানে তৃণমূল হারল তা মানুষের সঙ্গে কথা বলে জানতে হবে। মানুষের সমস্যার সমাধান করতে হবে। রাজ্য সরকারের উন্নয়নমূলক প্রকল্প এবং সাংসদ নিজে আমজনতার জন্য যে সমস্ত কাজ করেছেন সেগুলো মানুষকে বার বার করে বলতে হবে। ডায়মন্ডহারবার পুরসভার ৪, ৬, ৯ ও ১৬- এই ৪টি ওয়ার্ডে উনিশ ও একুশের নির্বাচনের কেন তৃণমূলের ফল খারাপ হল, সে ব্যাপারেও এদিন প্রশ্ন তোলেন অভিষেক। আর সেই সূত্রেই জানিয়ে দেন, এই সমস্ত ওয়ার্ডগুলিতে আরও বেশি করে নেতাকর্মীদের মানুষের বাড়িতে বাড়িতে দরজায়-দরজায় যেতে হবে। মানুষের সমস্যার সমাধান করতে হবে। তাঁদের কথা শুনতে হবে। এই সমস্ত বুথ ও ওয়ার্ডগুলো কেন তৃণমূল দুর্বল, সে ব্যাপারে মানুষের কাছে জানতে হবে।

Advertisement

এর পরই কড়া ভাষায় অভিষেক জানান, কোনও ওয়ার্ডে লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল লিড না পেলে তার দায়িত্ব নিতে হবে ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং প্রেসিডেন্টদের। তাঁদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এমনকী, তাঁদেরকে পদ থেকে সরেও যেতে হবে। অভিষেক মনে করিয়ে দেন, জনগণই তৃণমূলের শক্তি। তাই বার বার মানুষের কাছে যেতে হবে। মানুষের চাহিদা কী, তা তৃণমূলের নেতাকর্মীদের পরিষ্কারভাবে জানতে হবে। মানুষের দাবিগুলি তাঁকে জানানোর জন্য বলেন অভিষেক। আগামী দুমাস রাস্তায় থেকে মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। নেতাকর্মীদের সাংসদের পরামর্শ, এলাকায় বাড়ি-বাড়ি গিয়ে বোঝাতে হবে যে কেন্দ্রীয় সরকার ঘরের টাকা আটকে রেখেছে। এদিন ফলতা বিধানসভা কেন্দ্রের দলীয় কার্যকর্তাদের নিয়েও বৈঠক করেন অভিষেক। সেখানেও প্রায় একই বার্তা দেন।

Advertisement
Tags :
Advertisement