For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

দ্বিতীয় সংসার ভাঙনের মুখে, অথচ স্বামী রকিবের জন্যেই জেল খাটতে হয় মাহিকে

এরপর সৌদি আরব থেকে ফেসবুক লাইভে এসে মাহি জানান, তাঁর স্বামীর গাড়ির শো-রুম সনিরাজ কার প্যালেসের গেট ভেঙে ইসমাইল হোসেন ও মামুন সরকারের নেতৃত্বে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়েছে।
05:59 PM Feb 18, 2024 IST | Sushmitaa
দ্বিতীয় সংসার ভাঙনের মুখে  অথচ স্বামী রকিবের জন্যেই জেল খাটতে হয় মাহিকে
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে বেশ আলোচনায় ছিলেন ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি। কিন্তু ব্যাপক প্রচারণা চালিয়েও নির্বাচনে হেরে যান মাহি। প্রচারজুড়ে অভিনেত্রীর পাশে ছিলেন তাঁর দ্বিতীয় স্বামী রকিব সরকার। কিন্তু মাহি নির্বাচনে হেরে যাওয়ার পরেই একপ্রকার লোকচক্ষুর আড়ালে চলে যান। তখন থেকেই গুজব ওঠে দ্বিতীয় স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক ভাল নেই মাহির। অবশেষে শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে ফেসবুকে এসে একটি বিচ্ছেদের খবর নিজেই জানান মাহি। নিশ্চিত করেন, বর্তমানে এক ছাদের তলায় থাকছেন না তারা। শীঘ্রই তাঁরা আইনত বিচ্ছেদের পথে হাঁটবেন। তাঁদের মধ্যে কিছু বিষয় নিয়ে সমস্যা হওয়ার কারণে দ্রুতই তাঁরা আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেবেন। তবে দুজনের সিদ্ধান্তেই বিচ্ছেদ হবে তাঁদের। তবে ছেলে ফারিশকে নিজের কাছে রাখবেন বলেই জানালেন অভিনেত্রী।

Advertisement

এদিকে, অভিনেত্রীর স্বামী রকিব ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণবিষয়ক উপ কমিটির সদস্য। এবং মাহি বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। বিয়ের পরে রাজনীতিতে আসেন মাহি। তবে এখন অভিনেত্রীর দ্বিতীয় ঘর ভাঙনের কথা শুনে রীতিমতো চমকে গিয়েছে সবাই। এদিকে রবিবার আরও একটি খবরে এল যে, স্বামী রাকিবের জন্যে নাকি, একবার কারাগারে যেতে হয়েছিল মাহিকে। বিয়ের পর স্বামীর এক জমিকে কেন্দ্র করে একটি ডিজিটাল আইনি মামলার ফেঁসে যান নায়িক। বাংলাদেশ সংবাদ সূত্র অনুযায়ী, ২০২৩ সালে গাজীপুরে রকিবের গাড়ির শোরুম সনিরাজ কার প্যালেসে চরম ভাংচুর হয়। ওই জমি নিয়ে রাকিবের সঙ্গে বিরোধ বাধে ওই স্থানীয় বিরোধী পক্ষের। এরপর সৌদি আরব থেকে ফেসবুক লাইভে এসে মাহি প্রতিবাদী মেজাজে জানান, তাঁর স্বামীর গাড়ির শো-রুম সনিরাজ কার প্যালেসের গেট ভেঙে দিয়েছেন ইসমাইল হোসেন ও মামুন সরকার, তাঁদের নেতৃত্বেই হামলা ও ভাঙচুর হয়।

Advertisement

এমনকি গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের বিরুদ্ধে মাহি ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ আনেন। এরপরেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নিয়ে ‘মিথ্যাচার’ করার ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনি মামলায় মাহিকে গ্রেফতার করা হয়। পাশাপাশি জমি নিয়েও আরেকটি মামলা করেন রকিবের প্রতিপক্ষরা। তবে বেশিদিন হাজতে থাকতে হয়নি মাহিকে। ছাড়া পেয়ে যান। কিন্তু যে স্বামীর জন্যে অভিনেত্রীকে জেল পর্যন্ত খাটতে হল, আজ সেই সম্পর্কেই বিচ্ছেদের ঘন্টা বাজল। প্রসঙ্গত, ২০২১ সালে রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান সরকার রকিবকে বিয়ে করেন মাহি। এর আগে ২০১৬ সালের ২৪ মে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে বিয়ে করেছিলেন মাহি। কিন্তু ২০২০ সালে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। এবার বিয়ের ৩ বছর কাটতে না কাটতেই দ্বিতীয় স্বামীর ঘরও ছাড়লেন মাহি। ২০২৩ সালে দ্বিতীয় স্বামীর ঘরেই মা হন অভিনেত্রী। এদিকে মাহির বিচ্ছেদের খবর জানতে পেরেছেন তাঁর প্রাক্তন স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপু। মাহির সঙ্গে বিচ্ছেদের পর নতুন করে আর সংসার জীবনে পা দেননি মাহির প্রথম স্বামী। কিন্তু মাহির বিচ্ছেদের কথা শোনা মাত্রই তিনি জানালেন, শিগগির বিয়ে করতে চলেছেন। এই মূহুর্তে তাঁর পরিবার মেয়ে খুঁজছে। মেয়ে যত পেলেই বিয়ে করবেন।

Advertisement
Tags :
Advertisement