For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

প্রাণে মারার হুমকি মেলার অভিযোগ কামদুনির নির্যাতিতার ছোট ভাইয়ের

দফায় দফায় প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হচ্ছে কামদুনির নির্যাতিতার ছোট ভাইকে। দাবি, পুলিশের কাছে অভিযোগ জানালেও কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি।
10:40 AM Jul 06, 2024 IST | Koushik Dey Sarkar
প্রাণে মারার হুমকি মেলার অভিযোগ কামদুনির নির্যাতিতার ছোট ভাইয়ের
Courtesy - Google
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। দফায় দফায় প্রাণে মারার হুমকি(Threat to Kill) দেওয়া হচ্ছে কামদুনির(Kamduni) নির্যাতিতার ছোট ভাইকে(Victims Brother)। এমনই অভিযোগ নির্যাতিতার পরিবারের(Victim's Family)। শুধু তাই নয়, অভিযোগ উঠেছে কর্মস্থলের সামনে গিয়ে ওই যুবকের ওপরে নজরদারি চালাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। এই সব বিষয়ে পুলিশের(Police) কাছে অভিযোগ জানালেও কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি বলে দাবি নির্যাতিতার পরিবারের। কামদুনি-কাণ্ডে কলকাতা হাইকোর্ট ইতিমধ্যেই ৪ জনকে ফাঁসি ও যাবজ্জীবনের হাত থেকে মুক্তি দিয়েছে। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে যায় রাজ্য এবং কামদুনির প্রতিবাদীরা। গত বছরের অক্টোবরে সুপ্রিম কোর্ট সেই ‘মুক্তি’র নির্দেশে কিছু শর্ত আরোপ করে। যার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ছিল, নিজেদের গতিবিধি সম্পর্কে রাজারহাট থানাকে জানাতে হবে অভিযুক্তদের এবং তাঁরা কোনও ভাবেই নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন না। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, সেই শর্ত মানা হচ্ছে না।

Advertisement

কামদুনির নির্যাতিতার ছোট ভাইয়ের অভিযোগ, তাঁকে খুনের ছক কষেছেন বেকসুর খালাস পাওয়া অভিযুক্তেরা। ওই যুবকের কথায়, ‘চলতি বছরের শুরুতে এক দিন অফিস থেকে বাড়ি ফিরছিলাম। হঠাৎই কানে আসে, পিছন থেকে কেউ কাউকে বলছেন যে, আমি সামনে আছি। লাঙলপোঁতা মোড়ে লোকজন জড়ো করে ওই দিনই আমাকে খুনের পরিকল্পনা করা হচ্ছিল। দু’-তিন জন আমার কাছাকাছি এসে দাঁড়ান।’ তিনি জানান, সে দিন তিনি আত্মীয়দের ডেকে তাঁদের সাহায্যে বাড়ি ফেরেন। ওই যুবকের অভিযোগ, তিনি এই বিষয়টি জানিয়ে রাজারহাট থানায় লিখিত অভিযোগ করলেও জিডি নম্বর দেওয়া হয়নি। নির্যাতিতার ভাই আরও জানিয়েছেন, তিনি তাঁর কর্মস্থল ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প দফতরের সামনে লাঙলপোঁতা এলাকার কয়েক জনকে ঘোরাঘুরি করতে দেখেছেন। যদিও তাঁদের কেউ তাঁর অফিসে ঢোকেননি।  

Advertisement

তিনি জানান, ‘আমি আড়ালে থেকে মোবাইলে ওদের গতিবিধির ভিডিয়ো করি। এর পরে হেয়ার স্ট্রিট থানায় গিয়ে পুলিশকে সেই ভিডিয়ো দেখিয়ে ফের অভিযোগ জানাই।’ নির্যাতিতার পরিবার আরও জানিয়েছে, এ বারের লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিতে কামদুনিতে গেলে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। যদিও বিধাননগর কমিশনারেটের অধীন নিউ টাউনের উপ-নগরপাল মানব সিংলার দাবি, পুলিশের কাছে হুমকির কোনও অভিযোগ নেই। তিনি বলেন, ‘এমন হওয়ার কথা নয়। তা-ও রাজারহাট থানার সঙ্গে কথা বলব।’ অন্য দিকে, কামদুনির ঘটনার প্রতিবাদী মুখ টুম্পা কয়ালের অভিযোগ, গত ২৩ জুন তাঁর স্বামী বিশ্বজিৎ মণ্ডলের ওপরে হামলা চালায় কিছু দুষ্কৃতী। আর এবার তো সামনে এল খোদ নির্যাতিতার পরিবারকে দেওয়া হচ্ছে হুমকি।

Advertisement
Tags :
Advertisement