For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শ্বাসনালী থেকে সুপারির জমাট টুকরো বেরিয়ে এল

09:25 PM Jul 05, 2024 IST | Subrata Roy
কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শ্বাসনালী থেকে সুপারির জমাট টুকরো বেরিয়ে এল
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চেস্ট বিভাগের চিকিৎসকরা অসাধ্য সাধন করলেন। উত্তরবঙ্গ থেকে আলিপুরদুয়ারের বাসিন্দা সাথি দত্ত(Swathi Dutta) নামে এক ৫৭ বছরের মহিলা কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। ২মাসের অনবরত কাশি ,মাঝে মাঝে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে কলকাতা মেডিকেল কলেজের চেষ্ট ও মেডিসিন বিভাগে(Chest And Medicine Department) ভর্তি হন ওই মহিলা।বুকের এক্সরে আর সিটিস্ক্যান করা হয় ।যার রিপোর্টে এটা ইনফেকশন কিংবা টিউমার হতে পারে বলে সন্দেহ করা হয়। এরপর রোগীর ব্রংকোস্কোপি প্ল্যান করা হয়। ব্রংকোস্কোপি করতে গিয়ে শ্বাসনালী থেকে সুপারির জমাট টুকরো বেরিয়ে আসে ।

Advertisement

ওই মহিলা প্রচন্ড পরিমাণে পান সুপারি খেতেন। সেই সুপুরি জমাট বেঁধে যায় শ্বাসনালীতে। সেই জমাট সুপুরির টুকরো বের করতে গিয়ে তিন টুকরো হয়ে যায়। শুক্রবার প্রায় দীর্ঘক্ষণের অস্ত্র প্রচারে এই অসাধ্য সাধন করেন কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেস্ট বিভাগের প্রফেসর শিবেশ কুমার দাস ও তার টিম। এই জমাট বাঁধা সুপারির টুকরো শ্বাসনালী থেকে বেরোনোর পর এখন পুরোপুরি সুস্থ আলিপুরদুয়ার থেকে আসা সাথি দত্ত।

Advertisement

ওই মহিলার পরিবার আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন কলকাতা মেডিকেল কলেজের(Medical College) চেস্ট বিভাগের চিকিৎসক সহ অপারেশন থিয়েটারে উপস্থিত সকল চিকিৎসক কর্মীদের । এসএসকেএম হাসপাতালে প্রায়শই চিকিৎসায় নানা ধরনের সফলতা মেলে। এবার মেডিকেল কলেজের মুকুটেও যুক্ত হল সফলতার পালক। যদিও এর আগেও কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল অস্ত্রোপচারে একাধিক নজির গড়েছে। যারা নিয়মিত পান সুপারি সেবন করেন তাদের কাছে এই ঘটনা এক বড় উদাহরণ।

Advertisement
Tags :
Advertisement