For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

ভুয়ো আইপ্যাক কর্মীকে ৮৬ হাজার টাকা দিয়ে প্রতারিত হুমায়ুন কবীর

09:55 PM Feb 24, 2024 IST | Subrata Roy
ভুয়ো আইপ্যাক কর্মীকে ৮৬ হাজার টাকা দিয়ে প্রতারিত হুমায়ুন কবীর
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, মধ্যমগ্রাম ও মুর্শিদাবাদ: আইপ্যাক এর নাম করে মুর্শিদাবাদ জেলার ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবীরকে পূর্ণ মন্ত্রিত্ব এবং পছন্দ মত দফতর পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার ঘটনায় গ্রেফতার এক যুবক। মধ্যমগ্রাম(Madhyamgram) থেকে শনিবার দুপুরে ওই প্রতারককে গ্রেফতার করা হয় তার নাম অঞ্জন কুমার(Anjan Kumar)। তার ইলেকট্রনিক্স সরঞ্জাম এর ব্যবসা রয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ধৃত যুবক আইপ্যাকের প্রতীক জৈন ও মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের(Minister Arup Biswas) নাম করে ভরতপুরের বিধায়কের কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা দাবি করেছিল। শুধু তাই নয় এর আগে দফাই দফায় সে ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবীরের কাছ থেকে ৮৬হাজার টাকা নিয়েছিল। প্রথমে ভরতপুরের বিধায়ক(MLA Bharatpur) ওই টাকা দিয়ে দিলেও পরে সে বুঝতে পেরেছিলেন তিনি প্রতারিত হয়েছেন।

Advertisement

এরপর ফের ওই প্রতারক ১০ লক্ষ টাকা দাবি করে। শুধু তাই নয় লোকসভা নির্বাচনে আগে দলের গুরুত্বপূর্ণ পথ পেতে তাকে সাহায্য করবে বলে প্রতিশ্রুতিও দেয়। এরপর ভরতপুরের বিধায়ক শক্তিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে মুর্শিদাবাদ পুলিশ যে ফোন নাম্বার থেকে ওই প্রতারক যোগাযোগ করেছিল তাতে আড়িপাতে। এরপর ওই মোবাইল ফোন নম্বর ট্র্যাক করে জানা যায় প্রতারকের বাড়ি উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার মধ্যমগ্রাম অঞ্চলে। মুর্শিদাবাদ পুলিশের কাছ থেকে সমস্ত বিষয় জানতে পেরে অবশেষে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসত(Barasat) পুলিশ ওই প্রতারককে শনিবার সকালে গ্রেফতার করে। এই প্রসঙ্গে মুশিদাবাদ জেলার পুলিশ সুপার সূর্য প্রতাপ যাদব জানিয়েছেন, টেকনিক্যাল টিম ব্যবহার করে যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে হেফাজতে নেওয়ার পর এই প্রতারণা চক্র কতদূর বিস্তৃত আর এর সঙ্গে কারা যুক্ত আছে যাবতীয় তথ্য উদ্ধার করা হবে।

Advertisement

ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবীর পুলিশকে জানিয়েছেন ,২২ ফেব্রুয়ারি একাধিক নম্বর থেকে ওই প্রতারক ফোন করে তাকে বিরক্ত করতে থাকে। এরপর তিনি কলকাতা পুলিশের এক পুলিশ আধিকারিকের সঙ্গে আলোচনা করে অবশেষে শনিবার সকালের শক্তিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরপরই মুর্শিদাবাদ পুলিশ ও উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে প্রতারককে গ্রেফতার করেছে। ধৃত প্রতারক জেরার মুখে পুলিশকে জানিয়েছে, তার টাকার প্রয়োজন ছিল তাই সে এই প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছে। পুলিশ ধৃত প্রতারককে শনিবার আদালতে পেশ করে তদন্তের স্বার্থে নিজেদের হেফাজতে নেয়। তবে ভালো পদ এবং মন্ত্রিত্ব ও দফতর পেতে হুমায়ুন কবীর(Humayun Kabir) ছিয়াশি হাজার টাকা এক প্রতারককে দিয়েছেন এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে জোর আলোচনা। প্রসঙ্গত উল্লেখ করা যেতে পারে ২০২১ সালে বিধানসভা ভোটে ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা আইপ্যাককে নিয়োগ করেছিল তৃণমূল। সেই বেসরকারি সংস্থার কর্মী বলে ভরতপুরের বিধায়ককে প্রতারিত করে ধৃত যুবক।

Advertisement
Tags :
Advertisement