For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

'আমরা ঈশ্বরের কাছে যাচ্ছি', চিঠি লিখে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ ৩ বান্ধবীর

মেয়েটি সেই চিঠিতে লিখেছিল, 'আমাদের বাবা ডেকেছেন। আমরা হিমালয়ে যাচ্ছি। খোঁজ করার দরকার নেই। খোঁজার চেষ্টা করলে বিষ পান করব। আমরাও বিষ কিনেছি।' গত ১৩ মে, মুজাফফরপুরের যোগিয়া মঠ এলাকায় বসবাসকারী নিহত তিন মেয়ে নিখোঁজ হয়।
03:04 PM May 29, 2024 IST | Susmita
 আমরা ঈশ্বরের কাছে যাচ্ছি   চিঠি লিখে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ ৩ বান্ধবীর
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: ঈশ্বরের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছি, চিঠি লিখে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা তিনটি মেয়ের। তাঁদের মধ্যে একজন বয়স্ক নারী এবং দুজন কিশোরী। ঘটনাটি ঘটেছে, উত্তর প্রদেশের মথুরা রেলস্টেশনে। আর তাঁরা বিহারের মুজাফফর পুরের বাসিন্দা ছিল। যদিও তিন মেয়ের মধ্যে একজন বাড়িতে চিঠিটি লিখে জানিয়ে গিয়েছিল, সে তাঁর দুই বান্ধবীকে নিয়ে ঈশ্বরের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছে। তাঁদের যেন কেউ খোঁজ না করে। বহুদিন ধরেই যে, তাঁরা মনে মনে এমন কিছু ছক কষছিল তা কে জানত! তিনজন রমণীই মথুরায় রেললাইনে গলা কেটে আত্মহত্যা করেছে। গত ১৩ মে বিহারের মুজাফফরপুর থেকে তিন মেয়ে একসঙ্গে নিখোঁজ হয়। এর ১০ দিন পরে মথুরার রেলওয়ে স্টেশন থেকে ওই তিন কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, ট্রেন থেকে ঝাঁপ দিয়ে তিন বন্ধুই একসঙ্গে আত্মহত্যা করেছে। এর মধ্যে একটি মেয়ে বাড়িতে একটি চিঠি রেখে গিয়েছিল। তাঁদের মৃত্যুর কারণ তাঁদের পরিবারেরও অজানা।মথুরায় তিনটি মৃতদেহ উদ্ধারের পর এখন তাঁদের মৃত্যু রহস্য উদঘাটনে ব্যস্ত পুলিশ।

Advertisement

মেয়েটি সেই চিঠিতে লিখেছিল, "আমাদের বাবা ডেকেছেন। আমরা হিমালয়ে যাচ্ছি। খোঁজ করার দরকার নেই। খোঁজার চেষ্টা করলে বিষ পান করব। আমরাও বিষ কিনেছি।" গত ১৩ মে, মুজাফফরপুরের যোগিয়া মঠ এলাকায় বসবাসকারী নিহত তিন মেয়ে নিখোঁজ হয়। তিনজনের নিখোঁজ হওয়ার ১০ দিন পরে, তাঁদের পরিবার উদ্বিগ্ন হয়ে সিটি পুলিশ থানায় একটি এফআইআর নথিভুক্ত করে তদন্ত শুরু করে। এরপর মেয়ে তিনটির ফোনের লোকেশন ট্র্যাক করে পাওয়া যায় তাঁরা উত্তরপ্রদেশে রয়েছে। এরপরে, ২৬ মে উত্তরপ্রদেশের মথুরার বাজনা ব্রিজের কাছে রেললাইন থেকে তিনজনের লাশ পাওয়া যায়। পুলিশ জানিয়েছে, তারা মা-মেয়ে। নিহত তিনজনের হাতে মেহেন্দি লাগানো দেখতে পেয়েছে পুলিশ।

Advertisement

একজনের হাতে মেহেন্দি দিয়ে এসবিজিও লেখা ছিল। শুধু তাই নয়, তার পোশাকে মুজফফরপুরের এক দর্জির ট্যাগও পাওয়া গেছে। এরপরেই সন্দেহ করা হয় যে, তিন মেয়েই বিহারের বাসিন্দা। এই তথ্য পাওয়ার পর মুজাফফরপুর পুলিশের একটি দল পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মথুরায় আসে এবং এখানে তদন্ত শুরু করেছে। এখনও পর্যন্ত দুই কিশোরীর লাশ শনাক্ত করা হয়েছে। তবে তৃতীয় মেয়ের পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি। একটি মেয়ের মুখ ও অপরজনের জামাকাপড় শনাক্ত করা গেলেও পরিবারের সদস্যরা লাশ দেখে তৃতীয়টির পরিচয় দিতে অস্বীকার করেছে। তিনি বলেন, লাশটি একজন বৃদ্ধা নারীর।

Advertisement
Tags :
Advertisement