For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

মুড়িগঙ্গায় সেতু গড়তে NABARD দিচ্ছে ১৬৪৮ কোটি টাকা

NABARD থেকে ঋণ নিয়ে সাগরদ্বীপের মুড়িগঙ্গা নদীর ওপর ১৬৪৮ কোটি টাকা ব্যয়ে সেতু গড়তে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।
09:31 AM Jan 19, 2024 IST | Koushik Dey Sarkar
মুড়িগঙ্গায় সেতু গড়তে nabard দিচ্ছে ১৬৪৮ কোটি টাকা
Courtesy - Facebook and Google
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: তিনি প্রতিশ্রুতি দিলে সেই প্রতিশ্রুতি তিনি রক্ষা করেন। মানুষকে কথা দিলে সেই কথা তিনি অক্ষরে অক্ষরে পালন করেন। উন্নয়নের স্বপ্ন দেখালে সেটাও তিনি বাস্তবায়িত করেন। কেননা তিনি মমতা ব্যানার্জি(Mamata Banerjee)। কথা দিলে সেই কথা রাখতে তিনি জানেন। আরও একবার সেই কথা দিয়ে কথা রাখার বাস্তবায়ন দেখতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গবাসী(West Bengal)। দেখতে চলেছেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা(South 24 Pargana) জেলার বাসিন্দারা। দেখতে চলেছেন সাগরদ্বীপের(Sagardwip) মানুষেরা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বাংলা তথা দেশের মূল ভূখন্ডের সঙ্গে সাগরদ্বীপকে জুড়ে তিনি তিনি রেল-সড়ক সেতু গড়ে তুলবেন। চেয়েছিলেন কেন্দ্র সরকার সেই সেতু নির্মাণের কাজ করুক। কেন্দ্র এগিয়ে এসে সেই প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিল। কিন্তু তা তাঁরা রক্ষা করেনি। আর তাই এবার National Bank for Agriculture and Rural Development বা NABARD থেকে ঋণ নিয়ে সেই সেতু গড়ার কাজ শুরু করতে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। কেন্দ্র টাকা না দিলেও সেই সেতু তৈরির কাজ থমকে থাকবে না। এটাই মমতা ব্যানার্জি।

Advertisement

বাংলার সঙ্গে পদে পদে বঞ্চনা। পদে পদে টাকা না দেওয়া। পদে পদে হুমকি ধমকি। এটাই এখন নরেন্দ্র মোদির সরকারের চরিত্র। নিত্যদিনের কুকর্ম। কিন্তু তার জন্য বাংলা কেন অবহেলা, অনুন্নয়নের শিকার হবে। বিশেষ করে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেঁচে আছেন। তাই বাংলার অভিভাবিকা হিসাবে তিনি নিজেই বাংলার উন্নয়নের রাস্তা করে দিচ্ছেন। নিজে উদ্যোগ নিয়ে সমস্যার সমাধান করছেন। একটু একটি করে বাংলাকে এগিয়ে দিচ্ছেন তাঁর সুবর্ণ সময়ের পথে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার কাকদ্বীপ মহকুমার সাগর ব্লকটি বাংলা তথা দেশের মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন। সেই ব্লককেই এবার জুড়তে চলেছে সেতু। কেন্দ্র সরকার একসময় রাজী হয়েছিল এই সেতু গড়ার জন্য। কিন্তু কিছুই করেনি। তাই আর সময় নষ্ট করতে চান না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উন্নয়নের কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে NABARD থেকে Rural Infrastructure Development Fund বা RIDF’র টাকায় মুড়িগঙ্গা নদীর ওপর সেতু গড়তে চলেছে রাজ্য সরকার। এতদিন মূলত টাকার জোগান না থাকার কারণে আটকে ছিল এই প্রকল্পের কাজ।   

Advertisement

মুড়িগঙ্গা নদীর উপর এই সেতু তৈরির জন্য প্রয়োজন প্রায় ১৬৪৮ কোটি টাকা। কেন্দ্রের বঞ্চনার কারণে রাজ্যের পক্ষে একলপ্তে এই পরিমাণ টাকার জোগান দেওয়া কার্যত অসম্ভব। অথচ এই বছরই গঙ্গাসাগর মেলায় আগত পুণ্যার্থীর সংখ্যা কোটির ঘর ছাপিয়ে গিয়েছে। এত সংখ্যক মানুষকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লঞ্চে মুড়িগঙ্গা পার করে যেতে হয় সাগরদ্বীপে। ফলে তাঁদের এবং আরও মানুষকে নিরাপত্তা দিতে অতিরিক্ত উদ্যোগ নিতে হচ্ছে রাজ্য সরকারকে। আর্থিক টানাটানির মধ্যেও এই সেতু তৈরি রাজ্যের অন্যতম অগ্রাধিকারের তালিকায় রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই কারণে জানুয়ারির শুরুতে গঙ্গাসাগর মেলার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী দ্রুত সেতু নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এই প্রকল্পের জন্য অর্থ বরাদ্দ নিয়ে ইতিমধ্যে NABARD’র সঙ্গে আলোচনা হয়েছে রাজ্যের পূর্ত দফতরের আধিকারিকদের। সহজ শর্তে ঋণ দেওয়া নিয়ে NABARD’র আধিকারিকরা নীতিগত সম্মতি জানিয়েছেন। পাশাপাশি বরাদ্দের অনুমতি দিতে প্রকল্প সংক্রান্ত তথ্য জমা দিতে বলেছেন। ফলে আগামী অর্থবর্ষেই এই প্রকল্পের কাজ শুরু করার আশায় রয়েছে নবান্ন। কাজ শেষ হতে ৫ বছর লাগবে। ফলে RIDF খাতে এই প্রকল্পের জন্য ৩০০ কোটি টাকা করে দিলে সেতু তৈরির কাজ শেষ করা সম্ভব। NABARD’র পক্ষ থেকে লিখিতভাবে সবুজ সঙ্কেত এলে পরবর্তী প্রক্রিয়া শুরুর জন্য তা পাঠানো হবে রাজ্যের অর্থ দফতরে।    

Advertisement
Tags :
Advertisement