For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

বিশাখাপত্তনমে নারাইন-অঙ্গকৃশ ঝড়, ২৭২ রান তুলল কলকাতা

09:34 PM Apr 03, 2024 IST | Sundeep
বিশাখাপত্তনমে নারাইন অঙ্গকৃশ ঝড়  ২৭২ রান তুলল কলকাতা
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিশাখাপত্তনম: প্রথমে সুনীল নারাইন। পরে অঙ্গকৃশ রঘুবংশী। আর শেষে আন্দ্রে রাসেল। তিন জনের খুনে মেজাজের ব্যাটিংয়ে লন্ডভন্ড হয়ে গেল দিল্লি ক্যাপিটালসের বোলিং। তিন নাইটের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের সুবাদে প্রথমে ব্যাট করে দিল্লির বিরুদ্ধে সাত উইকেট হারিয়ে ২৭২ রান তুলল কলকাতা। সাত বোলারকে নামিয়েও নাইটদের বিন্দুমাত্র বিপাকে ফেলতে পারলেন না ঋষভ পন্থ। দিল্লির পেসাররা কেমন পিটুনি খেয়েছেন তা ছক্কা মারার পরিসংখ্যানেই স্পষ্ট। কলকাতার ব্যাটাররা মোট ১৮টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন।   

Advertisement

বুধবার বিশাখাপত্তনমে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন নাইট অধিনায়ক শ্রেয়স আয়ার। শুরু থেকেই আগ্রাসী মেজাজে খেলতে থাকেন নাইটদের দুই ওপেনার ফিল সল্ট ও সুনীল নারাইন। তবে সল্টের চেয়ে আগ্রাসী ছিলেন নারাইন। এক সময়ে ভারতীয় দলে খেলা ইশান্ত শর্মার হাতে চতুর্থ ওভারে বল তুলে দিয়েছিলেন দিল্লি অধিনায়ক। ওই ওভারে তিনটি ছক্কা এবং দু'টি চার হাঁকিয়ে ২৬ রান নিলেন নারাইন। পঞ্চম ওভারে বল করতে এসে সল্টকে (১২ বলে ১৮) ফেরান এনরিখ নোখিয়ে। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। উল্টে সুনীল আর অভিষেক ঘটা অঙ্গকৃশ তাণ্ডব শুরু করে দেন। ৫২ পাওয়ার প্লে-তে ৮৮ রান তুলে ফেলে কলকাতা। ২১ বলে অর্ধ শতরান করেন নারাইন। এক সময়ে মনে হচ্ছিল শতরান পেয়ে যাবেন কলকাতার ওপেনার। ফিক তখনই মিচেল মার্শের বলে উইকেটরক্ষক পন্থের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন নারাইন। সাতটি ছক্কা এবং সাতটি চারের সাহায্যে ৩৯ বলে ৮৫ রান করেন।

Advertisement

সুনীল ফেরার পরে দিল্লির বোলারদের পিটিয়ে ছাতু করার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন অঙ্গকৃশ। আইপিএলে প্রথম ইনিংসেই অর্ধশতরান করলেন ১৮ বছরের তরুণ ক্রিকেটার। আর সেই অর্ধশতরান করলেন মাত্র ২৫ বলে। যদিও ৫৪ রানে থেমে যায় অঙ্গকৃশের ইনিংস। নোখিয়ের বলে ইশান্তের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন তিনি। অঙ্গকৃশ ফেরার পরে ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালান আন্দ্রে রাসেল। দিল্লির পেসারদের পিটিয়ে ছাতু করেন। একপ্রান্ত ধরে রাখেন নাইট অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার। ১৮তম ওভারে খলিল আহমেদের বলে ফিরে যান তিনি। আউট হওয়ার আগে ১০ বলে করেন ১৮ রান। ছয় নম্বরে নামা রিঙ্কু সিংও বিধ্বংসী মেজাজে ব্যাট করতে থাকেন। নোখিয়ের এক ওভারে তিন ছক্কার সাহায্যে ২৪ রান নেন। যদিও বলকে সীমানার বাইরে পাঠাতে গিয়ে ওই ওভারেই ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরতে হয় তাঁকে (৭ বলে ২৬ রান)। শেষ ওভারের প্রথম বলে ফেরেন রাসেল (১৯ বলে ৪১)। তৃতীয় বলে আউট হন রমনদীপ সিং (২)। শেষ পর্যন্ত ২৬২ রানে থামে কলকাতার দৌড়। বেঙ্কটেশ আইয়ার (৫) ও মিচেল স্টার্ক (১) অপরাজিত থাকেন। দিল্লির পক্ষে নোখিয়ে ৫৯ রানে ৩ ও ইশান্ত শর্মা ৪৩ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন।

Advertisement
Tags :
Advertisement