For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

বিবাহিত মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ারদের পোস্টিং এবার স্বামীর জেলাতেই

বিবাহিত মহিলা সিভিক ভলেন্টিয়াররা এবার থেকে স্বামীর জেলাতেই পোস্টিং পেতে পারেন। প্রস্তাব অনুমোদিত হলে চলতি বছর থেকেই লাগু হয়ে যাবে।
11:22 AM Feb 10, 2024 IST | Koushik Dey Sarkar
বিবাহিত মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ারদের পোস্টিং এবার স্বামীর জেলাতেই
Courtesy - Facebook and Google
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: দিন দুই আগে রাজ্য বিধানসভায় পেশ হওয়া ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষের রাজ্য বাজেটেই বাংলার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের ১ হাজার টাকা করে বেতন বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাঁদের অবসরকালীন সময়ে আর্থিক সুবিধার পরিমাণ ২ লক্ষ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫ লক্ষ টাকাও করা হয়েছে। পাশাপাশি সিভিক ভলেন্টিয়াররা যাতে আরও বেশি করে রাজ্য পুলিশের বাহিনীতে যোগদান করতে পারেন, সেই জন্য তাঁদের কোটা ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২০ শতাংশও করা হয়েছে। এবার বিবাহিত মহিলা সিভিক ভলেন্টিয়ারদের(Married Female Civic Volunteer) জন্যও আরও একটি সুবিধা প্রদান করতে চলেছে রাজ্যের ক্ষমতাসীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের(Mamata Banerjee) সরকার। আর তা হল বিবাহিত মহিলা সিভিক ভলেন্টিয়াররা এবার থেকে স্বামীর জেলাতেই পোস্টিং(Posting in Husband District) পেতে পারেন। এই মর্মে রাজ্য পুলিশের তরফে একটি প্রস্তাব(Proposal) পাঠানো হচ্ছে রাজ্য সরকারের(West Bengal State Government) কাছে। নবান্ন সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রী তাতে অনুমোদন দিলে চলতি বছর থেকেই এই সুবিধা লাগু হয়ে যাবে।

Advertisement

রাজ্য পুলিশ প্রশাসনে বদলি ব্যবস্থা আছে। কিন্তু সিভিক ভলেন্টিয়ারদের সবার ক্ষেত্রে সেই সুবিধা নেই। অথচ রাজ্যজুড়ে তাঁরাই থানা বা ফাঁড়িব এলাকায় ট্রাফিকে ডিউটির ক্ষেত্রে পুলিশের সব থেকে বড় সহায় তাঁরাই। বাংলায় এখন সিভিক ভলান্টিয়ারের সংখ্যা ১ লক্ষ ৩০ হাজারের বেশি। তাঁদের মধ্যে ৪০ শতাংশের বেশি আবার মহিলা। দেখা যাচ্ছে পুলিশের সহযোগী হিসেবে কাজ করলেও মহিলা সিভিকদের বদলির কোনও নিয়ম নেই। ফলে দেখা যাচ্ছে সিভিক ভলেন্টিয়ার হিসাবে চাকরি করার সময়ে যে মহিলা সিভিকের বিয়ে হয়ে যাচ্ছে তাঁদের চাকরি বজায় রেখে সাংসারিক দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে বেশ সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে। অনেকেই কার্যত বাধ্য হয়ে চাকরি ছেড়েও দিচ্ছেন। এই সমস্যা সামনে আসায় এবং ক্রমশই বেড়ে চলায় রাজ্য পুলিশের আধিকারিকেরাই সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হন। সেই সূত্রেই প্রস্তাব যাচ্ছে নবান্নে।

Advertisement

মহিলা সিভিকদের একটা বড় অংশ বছর দশেক ধরে কর্মরত। কাজে যোগ দেওয়ার সময় তাঁদের বেশিরভাগই ছিলেন অবিবাহিতা। তখন বাপের বাড়ির এলাকাতেই পোস্টিং পেয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু বিয়ের পর দূরে শ্বশুরবাড়ির জেলায় চলে যেতে বাধ্য হয়ে অনেকে চাকরি ছেড়ে দেন। কিন্তু বদলির নিয়ম থাকলে তাঁদের এই ক্ষতি হতো না। সেই ছবিতে বদল আনতে বিবাহিত মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ারদের বিয়ের পর শ্বশুরবাড়ির জেলায় বদলির সুযোগ দিতে পদক্ষেপ করছে রাজ্য পুলিশ প্রশাসন। তাতে তাঁদের চাকরি বজায় থাকার পাশাপাশি সাংসারিক দায়িত্ব পালনেও সুবিধা হবে।

এইকথা মাথায় রেখেই পরিকল্পনাটি নেওয়া হয়েছে। নিয়মটি কীভাবে চালু করা যায়, তার প্রাথমিক খসড়াও তৈরি হয়ে গিয়েছে বলে খবর। সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সিভিককে তাঁর বর্তমান কর্মস্থলের আধিকারিকদের কাছে আবেদন করতে হবে। তাতে স্পষ্ট উল্লেখ থাকবে, কোন জেলায় তাঁর বিয়ে হয়েছে এবং সপক্ষে নথিও দিতে হবে। তখন সেটি পাঠিয়ে দেওয়া হবে সংশ্লিষ্ট জেলার কর্তাদের কাছে। সেখান থেকে সবুজ সঙ্কেত এলেই পুরনো জেলা থেকে ছাড়াপত্র নিয়ে মহিলা সিভিক ভলান্টিয়ার নতুন জেলায় কাজে যোগ দিতে পারবেন। একই সুযোগ পুরুষ সিভিকদের দেওয়া নিয়েও কথাবার্তা চলছে।

Advertisement
Tags :
Advertisement