For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

শত্রুঘ্ন সিনহা থেকে হেমা মালিনী, রবি কিষান থেকে পবন সিং, লোকসভা নির্বাচনে কার পাল্লা ভারী?

বলিউডের ড্রিম গার্ল হেমা মালিনী এবারও লোকসভা নির্বাচনে লড়ছেন। তিনি বিজেপির টিকিটে মথুরা লোকসভা আসনের তৃতীয়বারের মতো নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এবার তার সামনে প্রার্থীরা হলেন কংগ্রেসের মুকেশ ধানগার এবং বিএসপি থেকে সুরেশ সিং।
10:47 AM Jun 04, 2024 IST | Susmita
শত্রুঘ্ন সিনহা থেকে হেমা মালিনী  রবি কিষান থেকে পবন সিং  লোকসভা নির্বাচনে কার পাল্লা ভারী
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: গণতান্ত্রিক উৎসবের আজ প্রতীক্ষিত দিন। লোকসভা নির্বাচনের ভোট ফলাফল। কে জিতবে, কে হারবে, গোটা দেশের এখন পাখির চোখ ভোটের ফলাফলের ওপর। এবারের ভোটে গোটা দেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দলের সঙ্গে তুমুল টক্কর হচ্ছে অন্যান্য দল গুলির। কে জিতবে কে হারবে! টানটান উত্তেজনা। যদিও এবার লোকসভা নির্বাচনের বেশি আকর্ষণীয় দিকপালরা হলেন তারকা প্রার্থীরা। বহু তারকারা বিভিন্ন দলের প্রার্থী তালিকায় নাম লিখিয়েছেন। যাঁদের মধ্যে কেউ নতুন, আবার কেউ বহুদিন ধরেই রাজনীতিতে নিজের জায়গা পাকিয়েছেন। কেননা সিনেমা আর রাজনীতির সম্পর্ক অনেক পুরনো। বলিউড থেকে দক্ষিণ পর্যন্ত অনেক তারকা, যারা চলচ্চিত্রে তাদের অভিনয় দক্ষতা প্রমাণ করার পরে, তাদের ভাগ্য পরীক্ষা করার জন্য রাজনীতিতে প্রবেশ করেছেন। অনেক চলচ্চিত্র তারকা তাদের রাজনীতি যাত্রায় মানুষের ভালোবাসাও পেয়েছেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক, এবারে কোন কোন লোকসভা আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিনোদন জগতের কোন কোন ব্যক্তিত্বরা।

Advertisement

এখনও পর্যন্ত গোরখপুর থেকে এগিয়ে বিজেপির রবি কিষাণ

Advertisement

মান্ডি থেকে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী ও অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত

বিহারের কারাকাট আসন থেকে পিছিয়ে ভোজপুরি শিল্পী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী পবন সিং।

মিরাট থেকে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী ও অভিনেতা অরুণ গোভিল।

উত্তর-পূর্ব দিল্লি থেকে এগিয়ে বিজেপি প্রার্থী মনোজ তিওয়ারি।

আসানসোল থেকে তৃণমূল প্রার্থী এবং পিছনে অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা।

গুরগাঁও থেকে এগিয়ে রয়েছেন কংগ্রেস প্রার্থী ও অভিনেতা রাজ বব্বর।

বলিউডের ড্রিম গার্ল হেমা মালিনী এবারও লোকসভা নির্বাচনে লড়ছেন। তিনি বিজেপির টিকিটে মথুরা লোকসভা আসনের তৃতীয়বারের মতো নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এবার তার সামনে প্রার্থীরা হলেন কংগ্রেসের মুকেশ ধানগার এবং বিএসপি থেকে সুরেশ সিং। তবে, আগে কথা ছিল যে হেমা মালিনীর সামনে কংগ্রেস বক্সার বিজেন্দর সিংকে প্রার্থী করবে, কিন্তু পরে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন। ২০১৯ সালে, হেমা মালিনী বিজেপির টিকিটে মথুরা লোকসভা আসনে জিতেছিলেন। হেমা মালিনী, ২০০৪ সালে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। হেমা মালিনী তার চলচ্চিত্র জীবনে প্রায় ১৫০ টি ছবিতে কাজ করেছেন। তিনি সীতা অর গীতা, প্রেম নগর, আমির গরীব, শোলে-এর মতো চলচ্চিত্রের জন্য পরিচিত।

অভিনেতা রাজ বব্বর হরিয়ানার গুরগাঁও লোকসভা আসন থেকে কংগ্রেস প্রার্থী। রাজ বব্বর উত্তর প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির রাজ্য সভাপতিও ছিলেন। এই নির্বাচনে রাজের সামনে বিজেপি প্রার্থী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাও ইন্দ্রজিৎ সিং। তিনি বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকারের কর্পোরেট বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীও (স্বাধীন দায়িত্ব)। এদিকে জেজেপি রাহুল যাদব ফাজিলপুরিয়াকে এবং আইএনএলডি সৌরভ খানকে মনোনয়ন দিয়েছে। ২০১৯ সালে, বিজেপির রাও ইন্দ্রজিৎ গুরগাঁও আসনে জিতেছিলেন। রাজ বব্বর ২০১৯ সালে গাজিয়াবাদ লোকসভা আসন থেকে ভোটে দাঁড়াচ্ছেন, কিন্তু বিজেপির ভি কে সিংয়ের কাছে পরাজিত হন। রাজ বব্বর হিন্দি সিনেমায় বিভিন্ন ধরনের চরিত্রের জন্য পরিচিত। তিনি প্রায় ১৫০ টি চলচ্চিত্র এবং ৩০ টিরও বেশি ছবিতে কাজ করেছেন।

এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে একজন যিনি সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছেন। এমনই একটি নাম হলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। হিমাচল প্রদেশের মান্ডি আসন থেকে কঙ্গনাকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। এখানকার কংগ্রেস প্রার্থী বিক্রমাদিত্য সিং। বিক্রমাদিত্য মান্ডির বর্তমান কংগ্রেস সাংসদ প্রতিভা সিংয়ের ছেলে। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে এখান থেকে বিজেপির রাম স্বরূপ শর্মা জিতেছিলেন।

ভোজপুরি অভিনেতা রবি কিষাণ উত্তরপ্রদেশের অন্যতম জনপ্রিয় আসন গোরখপুর থেকে বিজেপির টিকিটে আবার নির্বাচনে লড়ছেন। তিনি এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য বটে। গোরখপুর সেই একই আসন, যেখান থেকে উত্তরপ্রদেশের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সাংসদ ছিলেন। এখানকার রাজনীতিতে গোরক্ষপীঠের বেশ প্রভাব রয়েছে। এবার গুরুত্বপূর্ণ এই আসনে লড়াই দুই চলচ্চিত্র মুখের মধ্যে। এসপি-র কাজল নিষাদ রবি কিষানের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, যিনি একজন ভোজপুরি সুপারস্টার। রবি ১৯৯২ সালে 'পিতাম্বর' ছবির মাধ্যমে তার অভিনয় জীবন শুরু করেন। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। বলিউড ছাড়াও, রবি কিষাণ ভোজপুরি, কন্নড় এবং তামিল ছবিতেও কাজ করেছেন।

এদিকে এবারের লোকসভা নির্বাচনে আলোচনায় রয়েছেন আরও এক প্রার্থী, যিনি বিহারের কারাকাট আসন থেকে লড়ছেন, ভোজপুরি সুপারস্টার পবন সিং। ভোজপুরি শিল্পী পবন সিং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে কারাকাটের লড়াইকে আকর্ষণীয় করে তুলেছেন। এখানে এনডিএ জোটের প্রার্থী হয়েছেন উপেন্দ্র কুশওয়াহা। ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী-লেনিনবাদী) মহাজোট থেকে রাজা রাম সিংকে প্রার্থী করেছে। বিজেপি আগে তাকে আসানসোল থেকে টিকিট দিয়েছিল, কিন্তু পরের দিন পবন সিং নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে অস্বীকার করেন। পবন সিং ভোজপুরি সিনেমার একজন জনপ্রিয় অভিনেতা এবং গায়ক। সংগ্রামের দিনগুলিতে, পবন সিংয়ের মা এবং তার কাকা তার ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন, তিনি কেবল দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন।

পশ্চিমবঙ্গের আসানসোল আসন থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহা। বিজেপি ২০১৯ সালে এই আসনটি জিতেছিল, যেখানে ঝাড়খণ্ড-বিহারের বেশিরভাগ শ্রমিক এবং অভিবাসী ভোটার রয়েছে। গায়ক ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় বিজেপির টিকিটে গত নির্বাচনে এখান থেকে জিতেছিলেন। পরে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেন সুপ্রিয়। এরপর তিনি তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন। পরবর্তী উপনির্বাচনে শত্রুঘ্ন সিনহা এখান থেকে তৃণমূলের টিকিটে জিতেছিলেন। এবার আসানসোল আসন থেকে পবন সিংকে প্রার্থী করেছিল বিজেপি। পবনকে প্রার্থী করার ঘোষণা আসতেই পবন সিংয়ের পুরনো কিছু গান নিয়ে আপত্তি তোলে বিরোধীরা। পরে আসানসোল থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার ঘোষণা দেন পবন সিং। এরপর এখান থেকে সাংসদ এসএস আহলুওয়ালিয়াকে প্রার্থী করে দল। এছাড়া জাহানারা খানকে প্রার্থী করেছে সিপিআই(এম)। বলিউডে 'শটগান' নামে পরিচিত শত্রুঘ্ন অনেক দুর্দান্ত ছবিতে অভিনয় করেছেন। নায়কের ভূমিকায় আধিপত্য বিস্তার করলেও তার আগে খলনায়ক হিসেবে বেশ নাম কুড়িয়েছেন। মজার ব্যাপার হলো কেরিয়ারের শুরুতে তিনি ভিলেন হিসেবেই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন।

ভোজপুরি অভিনেতা মনোজ তিওয়ারি বর্তমানে রাজধানী দিল্লির উত্তর পূর্ব দিল্লি লোকসভা আসনের সাংসদ। এবারও এখান থেকে মনোজ তিওয়ারিকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। তাঁর বিরুদ্ধে জেএনইউ ছাত্র ইউনিয়নের প্রাক্তন সভাপতি কানহাইয়া কুমারকে প্রার্থী করেছে কংগ্রেস। পূর্বাচল ও বিহার থেকে দুই বিখ্যাত মুখের আগমনের কারণে প্রতিযোগিতাটি আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে। ২০১৯ সালে, বিজেপি আবার দিল্লির সাতটি আসন জিতেছে। এর মধ্যে রয়েছে উত্তর পূর্ব দিল্লি আসনের জয়। এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি হয়েছিলেন ভোজপুরি শিল্পী মনোজ তিওয়ারি এবং দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিতের মধ্যে। যখন ফলাফল বেরিয়ে আসে, মনোজ উত্তর পূর্ব দিল্লি আসনে কংগ্রেসের শীলা দীক্ষিতকে পরাজিত করেন। চলচ্চিত্রে আসার আগে, মনোজ তিওয়ারি প্রায় ১০ বছর ধরে একজন ভোজপুরি গায়ক রয়েছেন।

দীনেশ লাল যাদব ওরফে নিরহুয়া, যিনি উত্তরপ্রদেশের আজমগড় আসনটি থেকে এবারের লোকসভা নির্বাচনে লড়ছেন। যেটি দেশের হট সিট গুলির মধ্যে একটি। বিজেপি এখানে ভোজপুরি শিল্পী দীনেশ লাল যাদব ওরফে নিরহুয়ার উপর আস্থা প্রকাশ করেছে। মুলায়ম সিং যাদবের ভাইপো এবং প্রাক্তন সাংসদ ধর্মেন্দ্র যাদব এসপির টিকিটে লড়ছেন। দীনেশ লাল যাদবও আজমগড়ের বর্তমান সাংসদ। মাশহুদ আহমেদকে মাঠে নামিয়ে প্রতিযোগিতাকে উত্তেজনাপূর্ণ করার চেষ্টা করেছে বিএসপি। এসপির অখিলেশ যাদব ২০১৯ সালের নির্বাচনে আজমগড় আসনে জয়লাভ করেছিলেন কিন্তু ২০২২ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর তিনি এমপি থেকে পদত্যাগ করেছিলেন। এরপর অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে জয়ী হন দীনেশ লাল যাদব। তিনি অমিতাভ বচ্চন, জয়া বচ্চন এবং গুলশান গ্রোভারের সঙ্গে ভোজপুরি চলচ্চিত্র গঙ্গা দেবীতে অভিনয় করেছেন।

Advertisement
Tags :
Advertisement