For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

বিমানবন্দরে ৩ ঘন্টা শুল্ক বিভাগের জেরার মুখে 'টার্মিনেটর' তারকা

এই বিষয়ে মিউনিখ বিমানবন্দরের প্রেস অফিসার থমাস মেইস্টার সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সাবেক গভর্নর ও সিনেমার তারকা মুক্তি পেয়েছেন।
05:47 PM Jan 18, 2024 IST | Sushmitaa
বিমানবন্দরে ৩ ঘন্টা শুল্ক বিভাগের জেরার মুখে  টার্মিনেটর  তারকা
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: দেশজুড়ে বিমানবন্দরে যাত্রী বিক্ষোভে জেরবার ভারতবর্ষ। বিমান বিলম্বে নিদ্রা ছুটেছে যাত্রীকূলের। তবে এবার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৩ ঘন্টা আটকে রইলেন জনপ্রিয় হলিউড অভিনেতা আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার। যিনি বিখ্যাত হলিউড সিনেমা 'টার্মিনেটর'-এ অভিনয়ের জন্যে বিখ্যাত। সম্প্রতি জার্মানির মিউনিখ বিমানবন্দরে টানা ৩ ঘন্টা আটকে পড়েছিলেন এই অভিনেতা। না কোনও বিমান বিলম্বের জন্যে নয়। শুল্ক বিভাগের জেরার মুখে পড়তে হয়েছিল অভিনেতাকে। আসলে কী কী পণ্য বহন করছেন যাত্রীরা, তা ঘোষণা ফরমে জানাতে হয়। অভিনেতাও সব তথ্য সঠিকভাবে জানিয়েছিলেন। কিন্তু শেষে জানাতে ভুলে যান যে, তাঁর কাছে একটি দামি ঘড়ি রয়েছে, যে পণ্য তিনি ইউরোপের বাইরে থেকে আমদানি করে ইউরোপে ব্যবহারের জন্য নিয়ে এসেছিলেন।

Advertisement

তিনি এটি সম্ভবত জলবায়ু সংকট মোকাবিলা করার তহবিলে দেওয়ার জন্য সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন। তাই নিছকই ভুলবশত তিনি ঘড়ি রাখার বিষয়টি শুল্ক বিভাগে জানাতে পারেননি। তাই ৭৬ বছরের অভিনেতাকে বিমানবন্দরের শুল্ক বিভাগের মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু তিন ঘণ্টা জেরার পর অভিনেতাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু ঘড়ির জন্য জরিমানাসহ ৩৫ হাজার ইউরো গুনতে হয় অভিনেতাকে। এই বিষয়ে মিউনিখ বিমানবন্দরের প্রেস অফিসার থমাস মেইস্টার সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সাবেক গভর্নর ও সিনেমার তারকা মুক্তি পেয়েছেন। তারা চলেও গিয়েছেন। আসলে তাঁর ঘড়ি ইউরোপের বাইরে থেকে আমদানি করে ইউরোপে ব্যবহার করার জন্য নিয়ে আসা হয়েছাল। সে ক্ষেত্রে সবার জন্য যে প্রক্রিয়া একই।

Advertisement

যদিও এই বিষয়ে আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার কিছুই জানাননি। অভিনেতার একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছেন, দামি ঘড়ি তিনি চাইলেই নিয়ে যেতে পারতেন। কিন্তু বিমানবন্দরের ঘোষণা ফরম পূরণের সময়েই ভুলটা হয়। তবে শুল্ক কর্তৃপক্ষকে তিনি সহায়তা করেছেন। আসলে অভিনেতার সঙ্গে যে ঘড়িটা ছিল সেটি সুইস লাক্সারি ব্র্যান্ড অডেমার্স পিগুয়েটের। তবে জরিমানা দিতে খুব ঝক্কি পোহাতে হয় অভিনেতাকে। তাঁদের ক্রেডিট কার্ড মেশিন ব্যবহার করতে ব্যর্থ হওয়ায় অভিনেতা কে নিয়ে যাওয়া হয় ব্যাংকে। সেখানেও ব্যর্থ হয়ে যাওয়ায় কাস্টমস অফিসার নতুন একটি ক্রেডিট কার্ড মেশিন নিয়ে টাকা দিয়ে রেহাই পান অভিনেতা।

Advertisement
Tags :
Advertisement