For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

বাবাকে গাড়ির চাকায় পিষে মেরে প্রেমিকের সঙ্গে ধাঁ নববধূ

মেয়েকে প্রেমিকের সঙ্গে পালাতে দেখে গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে পড়েছিলেন বৃদ্ধ। কিন্তু গাড়ি থামাননি যুগল। প্রৌঢ়কে চাপা দিয়েই চলে যান তারা।
02:42 PM Dec 25, 2023 IST | Koushik Dey Sarkar
বাবাকে গাড়ির চাকায় পিষে মেরে প্রেমিকের সঙ্গে ধাঁ নববধূ
Courtesy - Google
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: গ্রামের যুবকের সঙ্গে মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক মেনে নেননি বাবা। মেয়ের বিয়েও দিয়েছিলেন অন্যত্র। কিন্তু বিয়ের পর অষ্টমঙ্গলায় বাপের বাড়িতে আসা সেই মেয়ের ‘কীর্তি’তে স্তম্ভিত বীরভূম(Birbhum) জেলার বোলপুর থানা(Bolpur PS) এলাকার যজ্ঞনগর গ্রামের(Jagganagar Village) বাসিন্দারা। অভিযোগ, প্রাক্তন প্রেমিকের সঙ্গে পালানো সময় চারচাকা গাড়িতে পিষে মেরেছেন(Murder) নিজের বাবাকেই(Brides Father)! স্থানীয় সূত্রে খবর, মেয়েকে প্রেমিকের সঙ্গে পালাতে দেখে গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে পড়েছিলেন বাবা কুদ্দুস শেখ। কিন্তু গাড়ি থামাননি যুগল। প্রৌঢ়কে চাপা দিয়েই চলে যান তারা। এই ঘটনার পর গুরুতর জখম অবস্থায় কুদ্দুসকে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। প্রৌঢ়কে মৃত ঘোষণা করেন বর্ধমানের হাসপাতালের চিকিৎসকেরা।   

Advertisement

গ্রামবাসীরা জানান, কুদ্দুসের মেয়ে কুতুবা খাতুন গ্রামের গাজু শেখ নামে এক যুবকের সঙ্গে প্রেম করত। কিন্তু তাদের সম্পর্ক মেনে নেননি কুদ্দুস। অন্য জায়গায় সম্বন্ধ দেখে মেয়ের বিয়েও দেন তিনি। বিয়ের সাত দিনের মাথায় মেয়ে নতুন স্বামীকে নিয়ে অষ্টমঙ্গলা করতে আসে। অভিযোগ, সেই সময়ে আবার গাজুর সঙ্গে কুতুবার যোগাযোগ হয় এবং তারা পালানোর পরিকল্পনা করেন। গাজুই চারচাকা গিয়ে নিয়ে হাজির হন কুতুবার বাড়িতে। এর পর ওই গাড়িতে করেই দু’জনে পালানোর চেষ্টা করেন। সেই সময়েই ওই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বোলপুর থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, মেয়ের পরিবারের তরফে অবশ্য অপহরণের অভিযোগ তোলা হয়েছে। মেয়েকে জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, এই মর্মে দায়ের হয়েছে অভিযোগ। যদিও কুতুবা বা গাজু কেউই এখনও ধরা পড়েনি। তারা কোথায় ঘাপটি মেরে রয়েছে সেটাও পুলিশ জানতে পারেনি।

Advertisement

Advertisement
Tags :
Advertisement