For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

২৪’র ভোটে বাংলায় স্পেশাল পুলিশ অবজার্ভার বিজেপি ঘনিষ্ঠ অনিল কুমার শর্মা

অনিল কুমার শর্মাকে লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় স্পেশাল পুলিশ অবজার্ভার করা হচ্ছে। একুশের ভোটে তিনি বাংলায় চতুর্থ পুলিশ অবজার্ভার ছিলেন।
03:31 PM Mar 28, 2024 IST | Koushik Dey Sarkar
২৪’র ভোটে বাংলায় স্পেশাল পুলিশ অবজার্ভার বিজেপি ঘনিষ্ঠ অনিল কুমার শর্মা
Courtesy - Google
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: একুশের বিধানসভা নির্বাচনে যাকে বাংলায়(Bengal) চতুর্থ পুলিশ অবজার্ভার হিসাবে নিয়োগ করা হয়েছিল এবার সেই অনিল কুমার শর্মাকে(Anil Kumar Sharma) লোকসভা নির্বাচনে(Loksabha Election 2024) বাংলায় স্পেশাল পুলিশ অবজার্ভার(Special Police Observer) করা হচ্ছে। জাতীয় নির্বাচন কমিশন(ECI) সূত্রে জানা গিয়েছে, অবসরপ্রাপ্ত এই IPS আধিকারিকের বাংলায় যেহেতু ভোট করানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে তাই তাঁকেই লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় স্পেশাল পুলিশ অবজার্ভার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভোট বাংলায় কী ধরনের রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা হয়, কোন কোন এলাকা উত্তেজনাপ্রবণ, আধা সামরিক বাহিনীর মোতায়েন নিয়ে কী ধরনের সমন্বয়ের অভাব হয়, তার সবটাই তাঁর জানা। তাই তাঁর কাজে কিছুটা সুবিধাও হবে। তবে অভিযোগ উঠেছে, অনিল কুমার শর্মা বিজেপি ঘনিষ্ঠ আধিকারিক। একই সঙ্গে লোকসভা ভোটে বাংলার জন্য স্পেশাল জেনারেল অবজার্ভারও নিয়োগ করেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। তিনি হলেন প্রাক্তন আমলা অলোক কুমার সিনহা।

Advertisement

নির্বাচন কমিশন সূত্রে বলা হচ্ছে, এবার লোকসভা ভোটে প্রতিটি জেলায় একজন করে বিশেষ পর্যবেক্ষক থাকবেন। তিনি কন্ট্রোল রুমে থাকবেন। চার রকমের সূত্র থেকে তিনি তথ্য সংগ্রহ করবেন। তার মধ্যে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ও সোশাল মিডিয়াও রয়েছেন। তার পর অবস্থা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবেন তিনি। এই পর্যবেক্ষক স্পেশাল পুলিশ অবজার্ভার ও জেনারেল অবজার্ভারকে নিয়মিত তথ্য পাঠাবেন। রাজ্যে ভোট অবাধ ও শান্তিপূর্ণ করতে নির্বাচন কমিশন ইতিমধ্যে পদক্ষেপ করতে শুরু করেছে। রাজনৈতিক দলগুলির বরাবরের অভিযোগ হল, কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হলেও তারা ভোটের আগে নিয়মিত রুট মার্চ করে না। রাজ্য পুলিশ তাদের ঠিক মতো পরিচালিত করে না। কমিশন এবার পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে, কোনও এলাকায় রুট মার্চ না হলে সাধারণ মানুষ কমিশনের ওয়েবসাইটে গিয়ে অভিযোগ জানাতে পারেন। তাঁর পরিচয়ের গোপনীয়তা রক্ষা করা হবে। সেই সঙ্গে তথ্যের সত্যতা যাচাই করে যথাযোগ্য ব্যবস্থা নেবে কমিশন।

Advertisement

Advertisement
Tags :
Advertisement