For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

দার্জিলিং, কালিম্পং ও রায়গঞ্জে Heliport গড়ছে রাজ্য সরকার

এই প্রথম রাজ্যের কোথাও Heliport বা হেলিবন্দর তৈরি হতে চলেছে। তাও এক জায়গায় নয়, ৩-৩টে জায়গায়। দার্জিলিং, কালিম্পং ও রায়গঞ্জে।
11:22 AM Jul 06, 2024 IST | Koushik Dey Sarkar
দার্জিলিং  কালিম্পং ও রায়গঞ্জে heliport গড়ছে রাজ্য সরকার
Courtesy - Google and Facebook
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলায়(Bengal) রয়েছে নদী বন্দর। আছে স্থলবন্দরও। গড়ে উঠতে চলেছে সমুদ্র বন্দরও। এবার সেই তালিকায় যোগ হতে চলেছে Heliport। এই প্রথম রাজ্যের কোথাও Heliport বা হেলিবন্দর তৈরি হতে চলেছে। তাও এক জায়গায় নয়, ৩-৩টে জায়গায়। দার্জিলিং, কালিম্পং ও রায়গঞ্জে। এই Heliport গড়ে উঠলে পর্যটনের পাশাপাশি লাভবান হবে ব্যবসা-বাণিজ্যও। যাত্রী পরিবহণের ক্ষেত্রেও লাভ হবে। বিদেশে কম দূরত্বের গন্তব্যে নিয়মিত হেলিকপ্টার পরিষেবা দিতে Heliport আছে। সারা দেশে হাজারের বেশি এমন হেলিপোর্ট ইতিমধ্যেই তৈরি হয়ে গিয়েছে। এ রাজ্যে এর আগে বিচ্ছিন্ন ভাবে কয়েকটি পর্যটন কেন্দ্রে হেলিকপ্টার চললেও Heliport তৈরির কথা আগে ভাবা হয়নি। মূলত প্রত্যন্ত এলাকার পর্যটনকেন্দ্র, ধর্মীয় স্থানে নিয়মিত যাতায়াতের জন্যই এই Heliport ব্যবহার করা হয়। এবার বাংলাতে সেই Heliport গড়ে তুলবে ক্ষমতাসীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের(Mamata Banerjee) সরকার।

Advertisement

প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, রাজ্য সরকার দার্জিলিং, কালিম্পং ও রায়গঞ্জে যে Heliport গড়ে তুলবে সেখানে ওঠানামা করবে শুধুই হেলিকপ্টার। সেই Heliport-গুলিতে একাধিক হেলিপ্যাড থাকবে। তার সঙ্গে থাকবে একটি ছোট Terminal Building বা Waiting Lounge, ঠিক যেমন বিমানবন্দরে থাকে। তবে, হেলিপোর্টে থাকা Terminal হবে তুলনায় অনেক ছোট। সঙ্গে থাকবে নিরাপত্তা, যাত্রীদের মালপত্র এক্স-রে করার ব্যবস্থা। থাকবে দমকল বাহিনীও। কেন্দ্রীয় সরকারের গতিশক্তি প্রকল্পের অধীনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছোট বিমানবন্দর ও Heliport তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রাজ্যের তিন শহরে Heliport গড়তে টাকা আসবে ওই প্রকল্প থেকেই। আর তাই ওই সব Heliport গড়ে উঠবে Regional Connectivity Scheme বা RCS’র অধীনে। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের অধীনস্থ পবন হংস সংস্থাকে ওই ৩টি Heliport বানানোর বরাত দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, দার্জিলিং ও রায়গঞ্জে Heliport গড়তে জমি অধিগ্রহণ করে তুলে দেওয়া হয়েছে পবন হংসের কাছে। কালিম্পংয়ে জমি খোঁজার কাজ চলছে। নবান্ন সূত্রের খবর, ওই ৩ Heliport নিয়ে পবন হংস শীঘ্রই Details Project Report বা DPR জমা দেবে। রাজ্যের অন্য সব জেলায় স্থায়ী হেলিপ্যাড থাকলেও উত্তর দিনাজপুরে নেই। শিলিগুড়ির পরে উত্তরবঙ্গের রায়গঞ্জকেই দ্বিতীয় ব্যবসা কেন্দ্র হিসাবে বিবেচনা করা হয়। অথচ সেভাবে রায়গঞ্জের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপন করা যায়নি। দার্জিলিং ও কালিম্পংয়ে নিয়মিত হেলিকপ্টার পরিষেবা চালু হলে শিলিগুড়ি থেকে মাত্র ১০-১৫ মিনিটের মধ্যেই পৌঁছনো যাবে দুই শৈলশহরে। তবে কলকাতা বা শিলিগুড়ি থেকে আকাশ পথে সরাসরি রায়গঞ্জের যোগাযোগ স্থাপন হলে তাতে উপকৃত হবেন রায়গঞ্জ, বালুরঘাট-সহ বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষ। প্রচুর বিদেশি পর্যটক নিয়মিত ভাবে দার্জিলিং-কালিম্পংয়ে যান। তাঁরাও এই পরিষেবা ব্যবহার করতে পারেন।

Advertisement
Tags :
Advertisement