For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

দৌড়ে অনেকেই, তবুও বাংলার ভাগ্যে কমছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সংখ্যা

এবারে বাংলা থেকে ঠিক কতজন সাংসদ কেন্দ্রের মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেতে চলেছেন! দৌড়ে অনেকেই রয়েছেন, তবে এগিয়ে ৩ মূর্তি।
10:37 AM Jun 09, 2024 IST | Koushik Dey Sarkar
দৌড়ে অনেকেই  তবুও বাংলার ভাগ্যে কমছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সংখ্যা
Courtesy - Facebook and Google
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: উনিশের লোকসভা ভোটে বাংলা(Bengal) থেকে বিজেপি(BJP) পেয়েছিল ১৮জন সাংসদ। একইসঙ্গে বিজেপি দেশের মধ্যে পেয়েছিল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতাও। কিন্তু বাংলার ভাগে তারপরেও একজনও পূর্ণমন্ত্রী পদ জোটেনি নরেন্দ্র মোদির(Narendra Modi) মন্ত্রিসভায়। মোদির প্রথম দফার রাজত্বপাটে তাঁর মন্ত্রিসভায় বাংলা থেকে ঠাঁই পেয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। দ্বিতীয় দফায় তিনিও কিন্তু পূর্ণ মন্ত্রীর পদ পাননি। তাঁকে প্রতিমন্ত্রী করেই রাখা হয়েছিল। তবে ১৮জন সাংসদ দেওয়ার সুবাদে বাংলা থেকে কেন্দ্রের প্রতিমন্ত্রীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছিল ২। বাবুলের পাশাপাশি কেন্দ্রের প্রতিমন্ত্রী হয়েছিলেন দেবশ্রী চৌধুরীও। কিন্তু একুশের ভোটে বাংলায় বিজেপির হারের পরে সেই দুইজনেরই মন্ত্রীত্বে কোপ পড়ে। পরিবর্তে কপাল খুলেছিল নিশীথ প্রামাণিক, জন বার্লা, সুভাষ সরকার ও শান্তনু ঠাকুরের। তাঁদের ঠাঁই দেওয়া হয় কেন্দ্রের মন্ত্রীত্বে। তবে সবাই প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। এবারে মোদি যখন তৃতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নিতে চলেছেন তখন স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন থাকছে, এবারে বাংলা থেকে ঠিক কতজন সাংসদ কেন্দ্রের মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেতে চলেছেন!

Advertisement

এবারের লোকসভা নির্বাচনে দেশজুড়ে কমেছে বিজেপির সাংসদ সংখ্যা। তাই তাঁদের জোট শরিকদের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। স্বাভাবিক ভাবেই মন্ত্রিসভায় বিজেপির সদস্য সংখ্যাও কমছে। বাংলাতেও কমেছে বিজেপির সাংসদ। ১৮ থেকে কমে হয়েছে ১২। আর তাই কেন্দ্রের মন্ত্রিসভায় এবার বাংলার প্রতিনিধিত্ব কমে ২ হবে না ৩ হবে সেই নিয়ে জল্পনা চলছে। বঙ্গ বিজেপির একটি সূত্র বলছে, উত্তরবঙ্গ থেকে ১জন ও দক্ষিণবঙ্গ থেকে ১জন সাংসদকে মন্ত্রী করা হতে পারে। সেক্ষেত্রে কপালে শিকে ছিঁড়তে পারে সুকান্ত মজুমদার(Sukanta Majumdar) ও শান্তনু ঠাকুরের(Shantanu Thakur)। আবার অপর একটি সূত্র বলছে সুকান্ত মজুমদারের জায়গায় মনোজ টিগ্গা আসতে পারেন। এবং যদি ৩জনকে মন্ত্রী করা হয় তাহলে সেখানে কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি তথা তমলুকের বিজেপি সাংসদ অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের(Abhijit Gangopadhay) নাম উঠে আসতে পারে। এছাড়াও মন্ত্রীত্বের দৌড়ে থাকছেন পুরুলিয়ার দুবারের সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো, রানাঘাটের দুবারের সাংসদ জগন্নাথ সরকার, বিষ্ণুপুরের তিনবারের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ও জলপাইগুড়ির দুবারের সাংসদ জয়ন্ত রায়। তবে কার কার ভাগ্যে শিকে ছেড়ে, সেটাই এখন দেখার।

Advertisement

Advertisement
Tags :
Advertisement