For the best experience, open
https://m.eimuhurte.com
on your mobile browser.
OthersWeb Stories খেলা ছবিঘরতৃণমূলে ফিরলেন অর্জুন সিংবাংলাদেশপ্রযুক্তি-বাণিজ্যদেশকলকাতাকৃষিকাজ বিনোদন শিক্ষা - কর্মসংস্থান শারদোৎসব লাইফস্টাইলরাশিফলরান্নাবান্না রাজ্য বিবিধ আন্তর্জাতিককরোনাএকুশে জুলাইআলোকপাতঅন্য খবর
Advertisement

বছর শেষে সেরা ৫ বাংলা ছবি কী কী?

দশম অবতার থেকে মিতিন মাসি, বাঘাযতীন-সহ একাধিক চলচ্চিত্র এ বছর পুজোয় রিলিজ করেছে। আর সেগুলি বক্স অফিসে দারুণ প্রশংসিতও হয়েছে। বছর জুড়ে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা ছবির সংখ্যা নেহাত কম নয়।
07:26 PM Dec 31, 2023 IST | Sushmitaa
বছর শেষে সেরা ৫ বাংলা ছবি কী কী
Advertisement

নিজস্ব প্রতিনিধি: বছর শেষ! গোটা ২০২৩ সালটা বলিউডকে যেমন ভরিয়ে রেখেছিল একাধিক ব্লকবাস্টার চলচ্চিত্র, তেমনি বাংলা ইন্ডাস্ট্রও বছরভর একাধিক ছবি উপহার দিয়েছে টলিউডকে। তার মধ্যে সেরা ৫ টি চলচ্চিত্র কী কী, ঝটপট দেখে নিন। তবে প্রতিবারের তুলনায় এ বছর দুর্গা পুজোয় টলিউডে একাধিক বাংলা ছবি মুক্তি পেয়েছে। দশম অবতার থেকে মিতিন মাসি, বাঘাযতীন-সহ একাধিক চলচ্চিত্র এ বছর পুজোয় রিলিজ করেছে। আর সেগুলি বক্স অফিসে দারুণ প্রশংসিতও হয়েছে। বছর জুড়ে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা ছবির সংখ্যা নেহাত কম নয়। বছর শেষে কোন কোন বাংলা চলচ্চিত্র দর্শকদের মন জিতল চটপট জেনে নিন......

Advertisement

১. শেষ পাতা

Advertisement

এক ভুলে যাওয়া কবির আখ্যান। অতনু ঘোষ পরিচালিত এই ছবিতে নিজেকে নতুন করে গড়েছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর অনবদ্য অভিনয় এবং অচেনা শরীরী ভাষা মন ছুঁয়ে গিয়েছে সকলের। ছবিতে প্রসেনজিৎ ছাড়াও গার্গী রায়চৌধুরী, বিক্রম চট্টোপাধ্যায় এবং রায়তি ভট্টাচার্যের সাবলীল অভিনয় মুগ্ধ করেছিল!

২. মায়ার জঞ্জাল

ইন্দ্রনীল রায়চৌধুরীর এই ছবি বাস্তবের প্রতিচ্ছবি তুলে ধরেছিল। ছবিতে আরও অভিনয় করেছিলেন, ঋত্বিক চক্রবর্তী, চান্দ্রেয়ী ঘোষ, পরান বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু সকলকে ছাপিয়ে নজর কেড়েছিল বাংলাদেশি অভিনেত্রী আপি করিমের অভিনয়। প্রতিটি চরিত্রই দারুণ অভিনয় করেছিলেন। স্বল্প সময়ের জন্য ব্রাত্য বসুর অভিনয়ও নজর কেড়েছিল আলাদা করে।

৩. অর্ধাঙ্গিনী

চলতি বছরে যে গুটিকয়েক বাংলা ছবি একটু অন্য স্বাদের গল্প বাঙালিদের উপহার দিয়েছিলেন তাঁদের মধ্যে এই ছবিটা অন্যতম। ছবির গল্প বলছে, অসুস্থ স্বামী হাসপাতালের বিছানায় শয্যাশায়ী। কঠিন পরিস্থিতিতে স্বামীর স্বার্থেই প্রাক্তন স্ত্রীর কাছে সাহায্য চায় তাঁর বর্তমান স্ত্রী। এই ভাবেই ছবিতে আধুনিক জীবনের এক জটিল নকশা এঁকেছিলেন পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়। ছবিতে প্রাক্তন স্ত্রী শুভ্রা এবং বর্তমান স্ত্রী মেঘনার ভূমিকায় নজর কেড়েছিলেন যথাক্রমে চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায় এবং জয়া আহসান। তাঁদের অভিনয় দারুণ প্রশংসিত হয়েছিল।

৪. শহরের উষ্ণতম দিনে

অরিত্র সেন পরিচালিত ছবি কলেজপ্রেমের নস্ট্যালজিয়ার পাশাপাশি কলকাতার সঙ্গে কমবয়সি বাঙালির প্রেমের কথা বলেছিল। বিক্রম চট্টোপাধ্যায় এবং শোলাঙ্কি রায়ের রসায়ন বন্ধুত্বের নস্ট্যালজিয়া নতুন সীমায় এনেছিল। তাঁদের অভিনয় দারুণ প্রশংসিত হয়েছিল।

৫. দশম অবতার

সৃজিত মুখোপাধ্যায় অভিনীত এই ছবিতে অনির্বাণ ও প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় দুজনকেই ভিন্ন অবতারে একসঙ্গে দেখে মন্ত্রমুগ্ধ হয়েছিল দর্শক।এতে প্রধান মহিলা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন বাংলাদেশের বিখ্যাত অভিনেত্রী জয়া আহসান। খোকা এবং ২২ শ্রাবণের মিশেলে এই গল্পকে নতুন রূপ দিয়েছিল সৃজিত মুখোপাধ্যায়।

Advertisement
Tags :
Advertisement